Bhalukanews.com

সঞ্চয়পত্রের টাকা তুলা যাবে এটিএম বুথ থেকে

ভালুকা নিউজ ডট কম, ঢাকা অফিস : মুনাফা তুলতে বা মেয়াদন্তে সঞ্চয়পত্রে বিনিয়োগকারীদের এখন থেকে আর দীর্ঘ লাইনে দাঁড়াতে হবে না, হতে হবে না কোন প্রকার হয়রানীর শিকার। এখন কাছের এটিএম বুথ অথবা চেকের মাধ্যমে  মুনাফা তুলতে পারবেন গ্রাহকরা। এ ছাড়া যেকোনো স্থান থেকে মোবাইল এসএমএসে অথবা ইমেইলে জানতে পারবেন সঞ্চয়পত্রের সর্বশেষ তথ্য।

রোববার দুপুরে বাংলাদেশ ব্যাংকের মূল ভবনের জাহাঙ্গীর আলম কনফারেন্স হলে ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফার (ইএফটি) সফটওয়্যারটি উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ড. আতিউর রহমান।

জানা গেছে, সঞ্চয়পত্রধারী বা ক্রেতারা ব্যাংকের কাউন্টারে সশরীরে দীর্ঘসময় অপেক্ষা করে সঞ্চয়পত্রের মেয়াদপূর্তির মূল টাকা ও মাসিক মুনাফা সংগ্রহ করার ফলে গ্রাহকের যথেষ্ট সময় ও অর্থের অপচয় হয়। গ্রাহকের সময়, অর্থের সাশ্রয় ও ভোগান্তির কথা চিন্তা করে বাংলাদেশ ব্যাংকের এ উদ্যোগ।

সঞ্চয় স্কিমের যেসব গ্রাহক ইএফটি পদ্ধতিতে লেনদেন করতে আগ্রহী তাদের অবশ্যই ব্যাংক হিসাব থাকতে হবে। যাদের নেই তাদের ব্যাংকে হিসাব খুলতে হবে।

আরো জানা যায়, জাতীয় সঞ্চয় স্কিমে ইএফটি চালু হলে গ্রাহকের নিজস্ব ব্যাংক অ্যাকাউন্টে যথাসময়ে মুনাফার টাকা জমা হবে। এ ছাড়া মেয়াদন্তে মূল টাকা গ্রাহকের নিজস্ব অ্যাকাউন্টে জমা হবে। মুনাফার অথবা মূল টাকা উত্তোলনের জন্য গ্রাহকদের ইস্যু অফিসে যাওয়ার বাধ্যবাধকতা থাকবে না। সঞ্চয়পত্রের মুনাফা/মূল অর্থ প্রাপ্তির জন্য ব্যাংক কাউন্টারে দীর্ঘ সময় অপেক্ষারও প্রয়োজন পড়বে না।

একই সঙ্গে ই-মেইল এবং মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে গ্রাহকরা তাদের হিসাবের অথবা বিনিয়োগকৃত টাকার সব তথ্য জানতে পারবেন। গ্রাহকরা নিকটস্থ যেকোনো এটিএম বুথ কিংবা আউটলেট থেকে টাকা উত্তোলন করতে পারবেন। ইএফটি পদ্ধতি অবলম্বন করা হলে ম্যানুয়াল পদ্ধতির উপযোগিতা কমবে।

ফলে লোকবল ও কর্মঘণ্টার সাশ্রয় হবে এবং গ্রাহকদের সময় অপচয় হবে না। সর্বপরি একটি পেপারলেস কাজের পরিবেশ সৃষ্টি হবে। গ্রাহকরা সঞ্চয় স্কিম সম্পর্কিত কাগজাদি সংরক্ষণ, রক্ষণাবেক্ষণ ও ব্যবস্থাপনা সংক্রান্ত বিষয়াদি এবং সঞ্চয়পত্র হারিয়ে যাবার ঝুঁকি থেকে মুক্ত থাকবে।

 

*

*

Top