Bhalukanews.com

ডিমলায় বিদ্যালয়ের সভাপতি হতে না পেয়ে প্রধান শিক্ষকের বাড়ীঘর পুড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ

মহিনুল ইসলাম সুজন,ক্রাইমরিপোর্টার নীলফামরী  ॥ নীলফামারীর ডিমলায় বিদ্যালযের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হতে না পেয়ে প্রধান শিক্ষককের ঘরবাড়ী পেট্টল দিয়ে জ্বালিয়ে দেয়ার অভিযোগ সোমবার মামলা হয়েছে।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, কালীগঞ্জ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সফিউল ইসলামের সাথে উক্ত বিদ্যালয়ের সভাপতি পদ নিয়ে পশ্চিম ছাতনাই ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড়ের ইউপি সদস্য জাকিরুল ইসলামের দ্বন্দ চলে আসছিল।
জাকিরুল ইসলাম সভাপতি হতে না পারায় জেরে গত বুধবার রাতে পেট্টল দিয়ে প্রধান শিক্ষকের ৪টি রুমসহ সকল আসবাপত্র পুড়ে দেয় মর্মে সফিউল ইসলামের অভিযোগের ভিত্তিতে থানায় মামলা নং-২ দায়ের হয়। সফিউল ইসলাম বলেন সভাপতি পদে প্রকাশ্য ভোটে জাকিরুল ইসলাম হেরে গিয়ে উক্ত ঘটনা ঘটনায়।
প্রধান শিক্ষক সফিউল ইসলাম পশ্চিম ছাতনাই ইউনিয়নের ঠাকুরগঞ্জে বাড়ী হলেও ঘটনার দিন গত বুধবার ছেলে অসুস্থ থাকার কারনেন স্ব-পরিবারে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অবস্থান করে। বাড়ী তালা দেয়ার সুযোগে বাড়ীতে পেট্্রল দিয়ে পুড়ে দেয়া হয়েছে। এতে ক্ষতির পরিবার ১১লক্ষ টাকার উপরে। উক্ত প্রধান শিক্ষক দাবী করেন নগদ ৬৩ হাজার টাকা পুড়ে যায়, এ সময় ২৭টি ৫শ টাকার পোড়া নোট উদ্ধার করে পুলিশ। সফিউল ইসলাম বাদী হয়ে ইউপি সদস্য সদস্য ৬জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।
পশ্চিম ছাতনাই ইউপি সদস্য জাকিরুল ইসলাম বলেন, আমার বাড়ী থেকে প্রধান শিক্ষকের বাড়ী ৫ কিলোমিটার দুরে, বিদ্যালয়ের সভাপতি নিয়ে দ্বন্দের সুত্রে প্রধান শিক্ষক মিথ্যাভাবে ৬জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন। ডিমলা থানর ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, বসতবাড়ী কেহ না থাকার সুযোগে পেট্টল দিয়ে পুড়ে দেয়া হয়েছে। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে।                                                                                                                  

*

*

Top