Bhalukanews.com

সেই দীঘির এই সময়

বিনোদন প্রতিবেদক: দীঘির কথা নিশ্চয়ই অনেকের মনে আছে। মিষ্টি আর মায়াবী মুখের সেই মেয়েটি এখন বড় হয়েছে। আগামী বছর এসএসসি পরীক্ষা দেবে প্রার্থনা ফারদিন দীঘি। ফলে এখন পড়াশোনা নিয়েই কাটছে ওর দিনকাল। দীঘির মা প্রয়াত নায়িকা দোয়েলের ইচ্ছে ছিলো তার মেয়ে চিকিৎসক হবেন। মায়ের সেই ইচ্ছেটা পূরণ করতে চান কন্যা। দীঘি বলেন, ‘আম্মু চেয়েছিলেন আমাকে ডাক্তার বানাতে। আমি তার ইচ্ছের মর্যাদা দেবার জন্য পড়াশোনা করে যাচ্ছি। তবে আমার ভয় লাগে ডাক্তার হতে। কারণ এজন্য অনেক বেশি পড়াশোনা করতে হয়, তার চেয়ে বড় কথা এখন চারদিকে যেভাবে দুর্ঘটনা ও বীভৎস ঘটনা ঘটে, তখনই মনে হয় সবকিছুই ডাক্তারের কাছে আসবে। আমি ডাক্তার হয়ে এসব বীভৎস চেহারাকে সামলাতে পারবো না মনে হয়, ভয় লাগে! সবসময় প্রার্থনা করি, সৃষ্টিকর্তা যেন সবাইকে সুস্থ রাখেন, সবার যেন স্বাভাবিক মৃত্যু হয়।’ পড়াশোনা নিয়ে ব্যস্ত হওয়া দীঘির কাছে প্রায়ই বিভিন্ন কাজের প্রস্তাব আসে। কিন্তু দীঘি তাতে সায় দেন না। তবে দীঘির চেয়ে তার বাবার কাছে বেশি প্রস্তাব যায় মেয়েকে নিয়ে কাজের বিষয়ে। অভিনয়ের প্রস্তাব পাও তো? ‘খুব পাই। তবে আমি পড়াশোনাকেই এখন বেশি গুরুত্ব দিচ্ছি। মজার ব্যাপার হলো- আমার চেয়ে বাবার কাছে বেশি প্রস্তাব আসে। আসলে আমি তো অভিনয় শিল্পী, এটা আমার রক্তে মিশে আছে। যেখানেই যাই আমাকে সবাই অভিনয়ের জন্যই ভালোবাসে। তবে আমি আগে পড়াশোনাটা শেষ করতে চাই।’

*

*

Top