Bhalukanews.com

ঘর সজ্জায় সাধ্য মতো ফার্ণিচার নির্বাচন

“দামে কম মানে ভাল কাকলী ফার্ণিচার”

বাঙালি মাত্রই শান্তি প্রিয়।ঘর যতো ছোট বা বড়ই হোক, সেটা আমাদের আপন একটি পৃথিবী। নিজের ঘর, নিজ বাসার মত সুখ  কোথাও নেই। তাই আমাদের সর্বোত্তম চিন্তা চেতনা সেই ঘরটি ঘিরেই । চেষ্টা থাকে ছিমছাম করে সাজিয়ে সাধ আর সাধ্য দিয়ে ফুটিয়ে তোলা যায় আপন ব্যাক্তিত্ব। ছোট বড় সেই বাসার অন্দরসজ্জা নিয়ে যেন আমাদের চিন্তার শেষ নেই।ভালোবাসার সেই ঘরে কোন আসবাব কোথায় রাখলে সবচেয়ে বেশি ভালো লাগবে,সাধ্যের মধ্যে কেমন আসবাব কিনলে ঘরের জায়গা ভালো দেখাবে,মনে মনে তাই ভাবি সারাক্ষন।পছন্দ, চাহিদা, রুচিশীলতা এবং স্বক্ষমতা, এই চারটি বিষয়ের সমন্বয় ঘটিয়ে কিভাবে ছোট ঘরটি নিজের পৃথিবীর মতো করে সাজানো যায়, আজ আমরা “দামে কম মানে ভাল কাকলী ফার্ণিচার” কে সাথে রেখে সেই ব্যাপার গুলো নিয়েই কথা বলবো।
একান্তে আলাপ চারিতায় এফ এম আমান উল্লাহ আমান জানান,প্রথমেই আপনার রুচি ও সাধ্যানুযায়ী ফার্ণিচার নির্বাচন করুন।তিনি ব্যবস্থাপনা পরিচালক, কাকলী ফার্ণিচার।তার প্রতিষ্ঠানের শ্লোগান হলো “দামে কম মানে ভাল”।

ফার্নিচার নির্বাচন :- বাড়তি বা অপ্রয়োজনীয় ফার্নিচার ঘরে না রাখাই ভালো। খুব হালকা কাজ ও হালকা গড়নের ছিমছাম ফার্নিচার নির্বাচন করুন। অনেকটা বলতে পারেন অল ইন ওয়ানের মতোন ! যেমন একটি বড় স্লিম ওয়ারড্রোব বা আরমীরা একইসাথে সাইড টেবিল, কাপড়, বই খাতা রাখার কাজে আসতে পারে আবার ড্রেসিং টেবিলের কাজেও আসতে পারে।

১ : বক্স বেড ,সেমি বক্স বেড,ফ্লোরিং বক্স :-সেমি বক্স বেড:- এ খাটের নিচে ছয়,আট ইন্চি হাইসা থাকায় নিচে পুরোটা ফাকা থাকে। যার ফলে তাতখনিক অতিরিক্ত মালামাল যেমন: ঝাড়ু,মাদুর,মোড়া,বাচ্চাদের যাবতীয় খেলনা ইত্যাদি রাখা যায়। বড় কথা নিচে ঝাড়ু দিয়ে পরিস্কার করা যায়।
ফ্লোরিং বক্স :-অনেকে সোফায় বা মাটিতে ঘুমাতে পছন্দ করেন। তাদরে জন্য আধুনিক বেড হলো সর্ট কাঠ বা পার্টিকেল বোর্ডের মাচার উপর মোটা জাজিম বা তোষক ব্যবহার করে ফ্লোরিং বক্স তৈরি করে নেওয়া।
কেটাগড়ি অনুযায়ী খাটের দাম:-এস এস পাইপের সিঙ্গেল ডাবল ৪ থেকে ৫ হাজার,নান্দনিক লেকার সেমি বক্স ৮ থেকে ১৫ হাজার,নরমাল বক্স ২০ থেকে ৩০ হাজার, ভি আই পি ৫০ হাজার থেকে দের লাখ টাকা মাত্র।

২: ড্রেসিং টেবিল বা মানানসই আয়না :-নিজেকে স্মার্ট রাখতে ও ঘরের শোভা বর্ধনে প্রয়োজন ছোট বড়,দামী- কম দামী একটি ড্রেসিং টেবিল।আপনার সামর্থনুযায়ী ঘরে একটি ছোট বড় মাপের ওয়াল আয়না ফিট করে নিন। এতে আপনি ড্রেসিং টেবিলের ঝামেলা থেকে বেঁচে যাবেন। আর বড় আয়নার রিফ্লেকশনের কারণে আপনার ঘরটাও বড় দেখাবে।
বিভিন্ন ড্রেসিং টেবিলের দাম:-পার্টিকেল বোর্ডের ড্রেসিং ২ থেকে ৫ হাজার,লেকার ৮ থেকে ১২ হাজার,ভি আই পি ২০ থেকে ৩০ হাজারটাকা মাত্র।

৩: ওয়ারড্রোব জরুরী:- ওয়ারড্রোব আপনার বেডরুমের খুবই গুরুত্বপূর্ণ অংশ। ওয়ারড্রোবে প্রয়োজনীয় কাপড়-চোপড় রাখবেন ।নিজের জন্য উপরের ড্রয়ার আর বাচ্চাদের জন্য নিচের ড্রয়ার নির্বাচন করুন। মনে রাখবেন ওয়ারড্রোবের ভেতর খুব অগোছালো করে রাখলে মানসিক প্রশান্তিটা মিলবে না। যে কাপড়গুলো পড়া হয় না তা সরিয়ে নিন।সপ্তাহে অন্তত একদিন ওয়ারড্রোবের কাপড়গুলো নতুন করে ভাঁজ করে রাখুন। কখনোই ওয়ারড্রোবে অপরিষ্কার কোন কাপড় রাখবেন না।ওয়ারড্রোব থাকলে আর আনলার প্রয়োজন নেই।
বিভিন্ন ওয়ারড্রোবের দাম : বিভিন্ন ড্রেসিং টেবিলের দাম:-পার্টিকেল বোর্ডের লোকাল ৬ থেকে ৮ হাজার,লেকার ৯ থেকে ১২ হাজার,ভিনিয়ার বোর্ডের ১৮ থেকে ৩০ হাজর। ভি আই পি বেন্ড ৩০ থেকে ৫৯ হাজার টাকা মাত্র।

*

*

Top