Bhalukanews.com

দর্শনার্থীদের অন্যতম আকর্ষণীয় কোর সাফারি পার্ক

4

এস এম সোহেল রানা, গাজীপুর :  মানুষ বিনোদন প্রিয়। যদি সেই বিনোদন প্রকৃতির মাঝে পৃথিবীর সুন্দর সুন্দর বন্যপ্রানীতে পাওয়া যায় তাহলে আর কথাই নেই। দর্শনার্থীরা প্রকৃতি আর পশুর ভালোবাসায় মিলেমিশে একাকার। তাই দর্শনার্থীদের অন্যতম আকর্ষণীয় কোর সাফারি পার্ক। কোর সাফারী পার্কে সাফারী গাড়ী ব্যতীত অন্য্র কোন যানবাহন প্রবেশ করতে পারে না । কারন মজার বিষয় হলো যে, চিড়িয়াখানায় বন্যপ্রাণী খাচায় আর পর্যটক বাহিরে থেকে পশু পাখী দর্শন করে । তার উল্টো কোর সাফারিতে। আপনি খাঁচার মধ্যে আর পশুপাখিরা আপনাকে দেখতে আসছে। ব্যাপারটা কেমন! এরকম না হলেও অনেকটা কাছাকাছি অনুভূতির স্পর্শ পাবেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে। গাড়ির ভিতর বসে সাফারি করতে করতে দেখতে পাবেন নানান রকম পশুপাখি। দর্শনার্থীদের জন্য রয়েছে দুটি জিপ ও অনেক মিনিবাস। পর্যটক বা দর্শনার্থীরা একশত টাকা ফি পরিশোধ করে গাড়ি বা জিপে করে প্র্রাকৃতিক পরিবেশে ছেড়ে রাখা বন্যপ্রানী দেখতে পাবেন , গাড়ির ভিতর থেকেও বাঘ, সিংহ কিংবা জিরাফকে ক্যামেরা বন্দি করতে পারবেন।
এনিমেল কিপার রফিকুল ইসলাম জানান, কোর সাফারি খুব মজা পেয়ে থাকে।গাড়িতে করে ডুকতেই প্রথমে আফ্রিকান সাফারিতে দেখবেন দশ প্রজাতির প্রানী। তারপর হরিণ সাফারি, ভাল্লুক সাফারি, সাদা সিংহ সাফারি, সিংহ সাফারি, বাঘ সাফারি। সিংহ সাফারিতে আঠারটি সিংহের বাচ্ছা প্রসব হয়েছে। বাঘের তিনটি বাচ্ছা হয়েছে। জিরাফের তিনটি বাচ্ছা হয়েছে। জেব্রার বাচ্ছা হয়েছে। আটটি মিনিবাস রয়েছে দর্শনার্থীদের কোর সাফারি পার্ক পরিদর্শনের জন্য।
কোর সাফারীতে দর্শনীয় স্থাপনাসমূহ হলো :-বাঘ সাফারি,সিংহ সাফারি,চিতা/সাদা সিংহ সাফারি,ভাল্লুক সাফারি,হরিন সাফারি,আফ্রিকান সাফারি,সাফারি জীপ ও মিনিবাস,আভ্যন্তরীণ পাকা রাস্তা,মাংসাশী ও তৃণ ভোজী প্রাণী বেস্টনী,বাঘের ঘর,সিংহের ঘর,চিতার ঘর,ভাল্লুকের ঘর,মেকানাইজড গেট,বার্ড আইল্যান্ড,যাত্রী ছাউনী,খাদ্য সংরক্ষণাগার,কোয়ারেন্টইন শেড ,বন্যপ্রাণী চিকিৎসালয়।
কোর সাফারি পার্ক ১৩৩৫ একর এলাকা নিয়ে প্রতিষ্ঠা করা হয়-যার মধ্যে ২০.০ একরে বাঘ, ২১.০ একরে সিংহ, ৮.৫০ একরে কালো ভালুক, ৮.০ একরে আফ্রিকান চিতা, ৮১.৫০ একর চিত্রা হরিণ, ৮০.০ একরে সাম্বাব ও গয়াল, ১০৫.০ একরে হাতী, ৩৫.০ একরে জলহস্তী, ২২.০ একরে মায়া ও প্যারা হরিণ, ২৫.০ একরে নীলগাই এবং বারো সিংগা, ৪০৭.০ একরে বন্য মহিষ ।আফ্রিকান সাফারি পার্কের জন্য বরাদ্দ ২৪০ একর। যার মধ্যে বাঘ, সিংহ, সাদা সিংহ, জেব্রা, জিরাফ, ওয়াল্ডিবিস্ট, অরিক্স, ভালুক ও অন্যান্য বন্যপ্রাণী।
প্রাকৃতিক পরিবেশে বিচরণ করা পশুপাখি, জীবজন্তু দেখার ব্যবস্থা নিয়ে ঢাকার একদম পাশে গাজীপুরে গ—ে উঠেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্ক। পরিবারের সবাইকে নিয়ে একদিন ঘুরে বেড়ানোর ব্যবস্থা এবং ছোট্ট সোনামণিদের প্রাকৃতিক পরিবেশ ও জীবজন্তু সম্পর্কে সরাসরি পরিচিত করিয়ে দেয়ার সুযোগ রয়েছে এই সাফারি পার্কে। ঢাকা থেকে মাত্র ৪০ কিলোমিটারের রাস্তা। সেখানেই একসময়ের সমৃদ্ধ জীববৈচিত্রের ঐতিহ্যবাহী ভাওয়ালগ—। ওই ভাওয়ালগ—ের সমৃদ্ধ প্রাকৃতিক পরিবেশেই চালু করা হয়েছে এই বঙ্গবন্ধু সাফারি র্পাক।

*

*

Top