Bhalukanews.com

একগুচ্ছ হেমন্তের কবিতা – শেখ সামসুল হক

877

 

হেমন্ত স্পর্শে

নীল সাদা উদার অকান্ত আকাশ
এই হেমন্ত স্পর্শে চোখ ছুঁয়ে যায়
রাধারমণ সন্ধ্যার সামান্য আগে
সূর্য ডোবার বিচিত্র রংমহল
অশান্ত কথার ভেলকি বাজির তোড়ে
নিউট্রন বলের নিঃসঙ্গ চাঁদ তারার
মেঘকে দেখে সলাজ আড়ালে
সহসা চলে যাবার ইচ্ছেটা মানানসই
বলে ধরে নিতে হয় ঠিকঠাক ভাবে
কাজের ফাঁকে ফাঁকে দূর নীলিমায়
দৃষ্টি ছুঁড়লে বক পাখির উড়ে চলা
বালুচরের সাদা কাশবন হন্যে
বাউল বাতাসে ভূ-তটে ঝুকে পড়ার
দৃশ্য সস্তা দামে ভাল কিছু পাবার
শখ শহরতলীর কৃষ্ণ যুবকের কাছে
মনোহর লাগে বেশ কৃত্রিম নয়
অকৃত্রিম আজ কাল এখানে এখনো।

ঐ আসে হেমন্ত
শরৎ গিয়ে আসে হেমন্ত অনিবার্য
এক অতিথি প্রাণ সজনী চারদিকে
সহসা পাল্টে যায় বৃরে রূপচর্চা
নদীর ঢেউ ছোবল হানা বাদ দিয়ে
ফণা নামিয়ে ধীরে চলার গান গায়
ধান কাউন গন্ধ ছড়ায় আল পথ জুড়ে
কিষাণী ব্যস্ত উঠোনে আসা ধান সোনা
গোলায় নিতে কপালে ঘাম ঝরে পড়ে
খেয়াল নেই সেদিকে কাজ শুধু কাজ
সারা বছর এমন ব্যস্ত হতো যদি
আনন্দে আত্ম হারার ধ্বনি শোনা যেতো
এ গাঁও আর ও গাঁও ছেড়ে বহুদূরে
নবান্ন প্রতি ঘরের মাঝে সন্ধ্যা সাঁঝে
উল্লাসে ফেটে পড়তো হাসি খুশী যত।
হেমন্ত বেলায়
হেমন্ত বেলায় হেলায় খেলায়
অশান্ত জঠর জ্বালায় ভেলায়
ভাসন্ত ঢেউয়ে উজান মেলায়
ছুটন্ত বলগা হরিণ চেলায়

প্রাণপাত দেশের মাটির মায়ায়
দূর থেকে কাছের অর্ভেদ ছায়ায়
জীবনের সামান্য সহজ উপায়
খুঁজে নিতে চাইনে নাকের ডগায়

তারপর আসবে ঝড়ের আভায়
অন্য এক রকম ভাবনা হারায়
হেমন্ত খেলায় অনিদ্র বেলায়
ভরন্ত হৃদয় উচ্ছাসী খেলায়।

হেমন্ত মঙ্গলে
এই হেমন্তে কোথায় যাবে
জয় মাধবীময় মাধবী
হেমন্ত চলে যাবার পরে
এসো উর্বশী নয় এসো না
চাঁদ বিনোদন থাক পড়ে
চলো এবার মঙ্গলে যাই

লাল গ্রহে কবিতার চাষবাস
প্রাণ পাবে মন পাবে দিন রাত
ভালবাসা তৈরী হবে
নতুন অক্সিজেন নাইট্রোজেন
থাকবে বিরহের অভিমান
পাজরে পুড়বে ফসফরাস
ব্যবধান কমবে আহাদে
জীবন ফিরবে শ্বাস নিঃশ্বাসে।

*

*

Top