Bhalukanews.com

বাংলাদেশে প্রথম চালু হলো রোবট রেষ্টুরেন্ট

ঢাকা: খেতে বসবেন রেষ্টুরেন্টে কিন্তু কোন ওয়েটার আসবে না। আসবে হিউম্যানয়েড রোবট! আপনার পছন্দসই খাবারের অর্ডার নিয়ে সে আপনার টেবিলে পৌঁছে দেবে খাবার। অবাক হওয়ার বিষয় হলেও সত্যিই। খাবার পরিবেশন করবে রোবট। জাপান, চীন, থাইল্যান্ডসহ পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মতো এবার রোবোটিক রেষ্টুরেন্ট চালু হলো রাজধানীতেও। ‘রোবট রেষ্টুরেন্ট’ নামক এ রেস্তরাঁয় কোন মানুষ নয়, রোবটই ওয়েটার। বাংলাদেশে এটিই প্রথম রেষ্টুরেন্ট যেখানে রোবটের মাধ্যমে কাস্টমারদের খাবার সরবরাহ করা হবে। রেষ্টুরেন্টটি বাংলাদেশের জন্য একটি নতুন দিগন্তের সূচনা করল। বাংলাদেশ ও চীন যৌথভাবে এ রেষ্টুরেন্টটি পরিচালনা করবে। শিশুদের বিনোদন ও খাবারের বিষয়টি চিন্তা করেই এ ধরনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানান কর্তৃপক্ষ।

বুধবার রাজধানীতে দেশের প্রথম রোবট রেস্টুরেন্টের যাত্রা শুরু হলো। মিরপুর রোডে প্রধানমন্ত্রীর সরকারী বাসভবন এবং আসাদ গেটের সন্নিকটে প্রধান সড়কের ফ্যামিলি ওয়ার্ল্ড কনভেনশন সেন্টারে রেষ্টুরেন্টটির অবস্থান। বুধবার প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব অডিটরিয়ামে রেষ্টুরেন্টটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। রেস্তরাঁ কর্তৃপক্ষ ও রোবট প্রস্তুতকারী সংস্থা এ যৌথ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। সংবাদ সম্মেলনে রেষ্টুরেন্টটির পরিচালক রাহিন রাইয়ান নবী, এইচ জেড এক্স ইলেক্ট্রনিক টেকনোলজি কোম্পানির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ম্যাক্স সোয়াজ, কাস্টমার রিলেশন ম্যানেজার তানভিরুল হক উপস্থিত ছিলেন।

রেষ্টুরেন্টটির পরিচালক রাহিন রাইহান নবী বলেন, ‘অনেক সময় দেখা যায় যে ওয়েটাররা কয়েক ঘণ্টা কাজ করার পর ক্লান্ত হয়ে পড়েন। সেই ক্লান্ত অবস্থাতেই বাধ্য হয়ে তারা কাস্টমারদের খাবার সরবরাহ করেন। কিন্তু রোবট কখনও ক্লান্ত হবে না। তাই রোবট যখন খাবার সরবরাহ করবে তখন এটি কাস্টমারকে আরও ভাল সেবা দিতে পারবে। রোবটের খাদ্য পরিবেশন বিষয়টি যে কোন বয়সী মানুষের জন্য অত্যন্ত রোমাঞ্চকর পরিবেশও তৈরি করবে। বিশেষ করে শিশুরা সবচেয়ে বেশি রোমাঞ্চিত হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘একজন ওয়েটারের পক্ষে সব সময় খাবারের গুণগতমান নিশ্চিত করা ও জীবাণুমুক্ত রাখা সম্ভব হয়না। তাই রোবটে সরবরাহকৃত অবশ্যই জীবাণুমুক্ত থাকবে। রেষ্টুরেন্টটিতে প্রাথমিকভাবে তিনটি রোবট দিয়ে আমরা কাজ শুরু করেছি। পরবর্তীতে রোবট সংখ্যা আরও বাড়বে বলে জানান তিনি।

*

*

Top