Bhalukanews.com

চিটাগংয়ের রানের পাহাড়

অনলাইন: আক্ষেপটা যাবেনা। আজ রাতে ঘুম হবে কিনাও সন্দেহ। ব্যাট হাতে তাণ্ডব চালিয়ে শেষমেষ যে পরিস্থিতির শিকার তার ক্ষেত্রে এমন কথা বলাই যায়। তিনি সিকান্দার রাজা। মাত্র ৫ রানের জন্য মিস করলেন সেঞ্চুরি! ৪৫ বলে ৯ চার ৬ ছক্কায় সাজানো ইনিংসটি থেমে গেল ৯৫ রানে! এর চেয়ে বড় আফসোস কি হতে পারে? কিন্তু ক্রিকেট যে এমনই। জিম্বাবুয়ের এই তারকার ব্যাটেই ঘরের মাঠে সম্পূর্ণ ভিন্নরূপে দেখা দিল চিটাগং ভাইকিংস।হারতে হারতে পয়েন্ট তালিকার তলানিতে থাকা মিসবাহ-উল-হকের দল নির্ধারিত ২০ ওভারে গড়ল ২১১ রানের পাহাড়! জিততে সিলেট সিক্সার্সকে করতে হবে ২১২ রান।শুক্রবার জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে দিনের দ্বিতীয় খেলায় টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ২৬ রানেই সৌম্য সরকারের (১) উইকেট হারায় চিটাগং ভাইকিংস। সিলেট অধিনায়ক নাসির হোসেনের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন জাতীয় দলের এই তরুণ ওপেনার। এনামুল হক বিজয়ও ব্যর্থ। ব্রেসনানের বলে ফিরেছেন মাত্র ৩ রান করে। তবে সিলেট বোলারদের তুলোধুনো করছিলেন অপর ওপেনার লুক রনচি।শেষ পর্যন্ত আবুল হাসান রাজুর বলে ব্রেসনানের তালুবন্দি হয়ে শেষ হয় তার ২৫ বলে ৬ চার ১ ছক্কায় গড়া ৪১ রানের বিধ্বংসী ইনিংস। কিন্তু সিলেটের দুঃখের এখানেই শেষ নয়; শুরু মাত্র। রনচির বিদায়ের পর দুই প্রান্ত থেকেই ব্যাটিং তান্ডব শুরু করেন ভ্যান জাইল আর সিকান্দার রাজা। ঝড়ের গতিতে এগিয়ে যেতে থাকে চিটাগংয়ের রান।২৬ বলে ৪ বাউন্ডারি ২ ওভার বাউন্ডারিতে ৪০ রান করা ভ্যান জাইল থামেন কামরুল ইসলাম রাব্বির বলে।
কিন্তু সিকান্দার রাজাকে থামানো যেন কারও সাধ্যে নেই! যখন তিনি থামলেন, তখন আফসোস ছাড়া করার কিছুই ছিল না। কামরুল ইসলাম রাব্বির বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে ধরা পড়লেন নাসির হোসেনের হাতে। আউট হওয়ার সময় তার সংগ্রহ ৪৫ বলে ৯ চার ৬ ছক্কায় ৯৫ রান! আফসোসের শেষ কি আছে?

*

*

Top