Bhalukanews.com

নেপালে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় শ্রীপুরের দুইজন নিখোঁজ, আহত তিনজন চিকিৎসাধীন

000000

অনলাইন ডেস্ক: নেপালে ত্রিভুবন বিমানবন্দরে সোমবার দুপুরে বিধ্বস্ত হওয়া ইউএস-বাংলার বিমানে ছিলেন গাজীপুরের শ্রীপুরের নগর হাওলা গ্রামের ফারুক ও মেহেদী হাসান দম্পতির পাঁচ সদস্য।
তাদের পরিবারের দাবি তিন জন বেঁচে থাকলেও দুজন নিখোঁজ রয়েছেন। নেপালের হাসপাতাল থেকে বাড়িতে মুঠোফোনে মেহেদী হাসান কথাও বলেছেন।
বিধ্বস্ত বিমানের যাত্রী মেহেদী হাসানের বাবা তোফাজ্জল হোসেন জানান, সন্ধ্যা ৭টায় নেপাল থেকে মেহেদী হাসান বাড়িতে মুঠোফোনে কথা বলেছেন। এসময় মেহেদী হাসান জানান, তিনি নিজে ও তার স্ত্রী সাঈদা কামরুন্নাহার স্বর্ণা ও আলমুন নাহার এ্যানি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তবে, ফারুক আহমেদ ও ফারুক আহমেদের তিন বছর বয়সী শিশু প্রিয়ংময়ী তামাররা’র কোনো খোঁজ পায়নি বলে জানিয়েছেন তিনি।
উল্লেখ্য, নেপালের ত্রিভুবন বিমানবন্দরে সোমবার দুপুরে ইউএস-বাংলার বিমান বিধ্বস্ত হয়। এতে গাজীপুরের শ্রীপুরের নগর হাওলা গ্রামের ফারুক ও মেহেদী হাসান দম্পতির পাঁচ সদস্য।
বিমানে থাকা পাঁচ সদস্য হলেন, উপজেলার নগর হাওলা গ্রামের মৃত শরাফত আলীর ছেলে ফারুক আহমেদ (৩২), তার স্ত্রী আলমুন নাহার এ্যানি (২৫), তাদের একমাত্র সন্তান প্রেয়সী (৩), নগরহাওলা গ্রামের তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে মেহেদী হাসান অমিও (৩৩) ও তার স্ত্রী সাঈদা কামরুন্নাহার স্বর্ণা আক্তার (২৫)।

*

*

Top