Bhalukanews.com

`আল্লাহ আমাকে বাঁচিয়েছেন’

দীর্ঘ ১১ দিন ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে বুধবার দুপুরে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিরেছেন জনপ্রিয় লেখক ও অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল। তাকে বরণ করে নিতে বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা ‘সাধাসিধে কথা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।অনুষ্ঠানে ছাত্র-শিক্ষকসহ মহান আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে জাফর ইকবাল বলেন, আমাকে নাস্তিক বলা হয়। অথচ পবিত্র কুরআনের প্রথম লাইন থেকে শেষ লাইন আমি যেভাবে ভালোবেসে গভীরভাবে পড়েছি আমার মনে হয় না দ্বিতীয় কেউ সেভাবে পড়েছেন। আল্লাহ আমাকে বাঁচিয়েছেন। নিশ্চয় তিনি আমাকে দিয়ে ভালো কিছু করাতে চান। তিনি আমাকে মায়া করেছেন।জনপ্রিয় এই লেখক তার বক্তৃতায় একাধিকবার পবিত্র কোরআনের আয়াত উদ্ধৃতি করেন। তার ওপর হামলাকারী ফয়জুল হাসানসহ বিপথে যাওয়া তরুণ সমাজের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, তুমি যদি একটা মানুষকে হত্যা করো তবে সমগ্র মানবজাতিকে হত্যা করলে। কুরআন শরিফে এই মহান বাণী রয়েছে। যারা তোমাকে বুঝাচ্ছে তারা বিভ্রান্ত করছে। তোমরা যদি একটা মানবজাতিকে বাঁচাও তবে সমগ্র মানবজাতিকে বাঁচালে। যারা ছুরিকাঘাতের পর আমাকে এখান থেকে তুলে হাসপাতালে পাঠিয়েছ তারা শুধুই আমাকে বাঁচাওনি সমগ্র মানবজাতিকে বাঁচিয়েছ। আমি তোমাদেরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমি সিএমএইচ ও ওসমানী হাসপাতালের চিকিৎসকদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। পাশাপাশি ধন্যবাদ জানাচ্ছি অন্যান্যদের।

প্রসঙ্গত, গত ৩ মার্চ বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে একটি অনুষ্ঠান চলাকালে ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলা চালায় ফয়জুর রহমান নামে এক যুবক। জাফর ইকবালকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে অস্ত্রোপচার শেষে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতেই তাকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

*

*

Top