Bhalukanews.com

রিক্রুটিং এজেন্সি জনশক্তি রপ্তানির নামে মানব পাচার ও জালিয়াতি

স্টাফ রিপোর্টার :Bon Voyage Travels & Overseas (pvt.) Ltd নামে একটি রিক্রুটিং এজেন্সি জনশক্তি রপ্তানির নামে মানব পাচার ও জালিয়াতিতে লিপ্ত রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সরেজমিনে তদন্ত করে জানা যায়, জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরো (বিএমইটি) কর্তৃক নিবন্ধিত Bon Voyage Travels & Overseas (pvt.) Ltd লাইসেন্স নং ৫০৯, 29 টয়েনবি সার্কুলার রোড, মতিঝিল এর ঠিকানায় অফিস নিলেও বর্তমানে তাদের অফিস ৮৪ নিউ এয়ারপোর্ট রোড, বনানী। এর মাঝে তারা আরও কয়েকবার অফিস পরিবর্তন করেছে। খোঁজ খবর নিয়ে জানা যায়,  বনানীর এফ ব্লক ও ডি ব্লকেও তারা  কয়েকবার অফিস নিয়েছে।
প্রতিষ্ঠানটির প্রধান হিসেবে বিএমইটির ওয়েবসাইটে মোঃ মমিনুল্লাহ পাটোয়ারীর নাম থাকলেও প্রতিষ্ঠাটি পরিচালক হিসেবে পরিচয় দিয়েছেন নজরুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তি! রিক্রুটিং এজেন্সিগুলোর সংগঠন বায়রায় খোঁজ নিয়ে জানা যায়, প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে নাম রয়েছে কামরুল হাসান নামের একজনের। আরও জানা যায় প্রতারনা করার পর পর তারা অফিস পরিবর্তন করে ফেলে। অফিস পরিবর্তনের জন্য বিএমইটির কোন নীতিমালার তোয়াক্কা করে না।
ভুক্তভোগীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, তারা Bon Voyage Travels & Overseas (pvt.) Ltd কে মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুরসহ বিভিন্ন দেশের ভিসার জন্য টাকা দিয়েছে। কিন্তু তাদেরকে ভিসাদেয়া হয় নাই। কুমিল্লার ভুক্তভোগী শিলা নামের এক মহিলার সাথে কথা বলে জানা যায়, তিনি তার ছেলেকে মালয়েশিয়া পাঠাবেন বলে Bon Voyage Travels & Overseas (pvt.) Ltd এককালীন ৫০০০০ টাকা দিয়েছেন। কিন্তু প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক পরিচয় দানকারী নজরুল ইসলাম টাকা গ্রহণ করলেও কোন ডকুমেন্ট তথা মানি রিসিপ্ট দেননি। এমনকি এখন তিনি আর ফোনও ধরেন না। অন্য আরেকজন ভুক্তভোগী সাজ্জাদ হোসেন ভুইয়া অভিযোগ করে বলেন, বন  ভয়েজ ট্রাভেল এন্ড ট্যুরস এর পরিচালক নজরুল ইসলামকে তিনি মালয়েশিয়ার ৭ টি ভিসা নেবেন বলে অগ্রিম ৩৫০০০০/ (তিন লক্ষ পঞ্চাশ হাজার) টাকা দিয়েছিলেন। যা বনানী থানায় সাধারণ ডায়েরীভুক্ত (ডায়েরি নং 1896) করে অভিযোগ হিসেবে দাখিল করেছেন। । তিনি বলেছিলেন ভিসা দেওয়ার পর বাকি টাকা দিবেন। কিন্তু ভিসা তো স্ট্যাম্পিং করেনই নাই, বরং অগ্রিম হিসেবে আরও ৩৫০০০০/- (তিন লক্ষ পঞ্চাশ হাজার) টাকা দাবী করেছেন। এসব টাকার কোন ডকুমেন্ট উনি দেন নাই। অভিযোগ রয়েছে উনি ভিসা না পেয়ে অবৈধ পন্থায় মানব পাচার করে থাকেন।
নজরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে উনি ব্যস্ত বলে ফোন রেখে দেন।
এ ব্যাপারে বিএমইটির জেনারেল সেক্রেটারী সোঃ রুহুল আমিনের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমাদের কাছে কিছু অভিযোগ এসেছে। আমরা অভিযোগ তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্যোগ নেব।

*

*

Top