Bhalukanews.com

সড়ক দূর্ঘটনায় শিশু মরিয়ম গুরুতর আহত

সড়ক দূর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে ঢাকায় ফেরা হলো না ঈদে নানা বাড়িতে বেড়াতে আসা শিশু মরিয়মের। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় সে এখন বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের বেডে কাতারাচ্ছে। শনিবার বিকেল ৫ টার দিকে ঢাকায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাবা-মায়ের সাথে বাসের অপেক্ষায় থাকা বরগুনার চান্দখালী-গলাচিপা বাস স্ট্যান্ডে বসে একটি পিকআপ ভ্যানের (ঢাকা-২৫৩/ও) ধাক্কায় রাস্তার উপর সিটকে পড়ে গুরুতর আহত হয় মরিয়ম (৬)। পিকআপ ভ্যানটি বেপরোয়া গতিতে বরগুনা থেকে বরিশাল যাচ্ছিল। প্রতক্ষদর্শীরা জানান, চালকের বেপরোয়া গাড়ি চালানোর জন্য ও উদাসিনভাবে পাশে বসা মহিলার সাথে খোশ গল্পের কারণে এ দূর্ঘটনা ঘটেছে। তাৎক্ষণিকভাবে মরিয়মকে উদ্ধার করে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মরিয়মকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর পরামর্শ দিয়েছেন। বরগুনা জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক আল্লামা মোস্তফা জানান, দূর্ঘটনায় মরিয়মের বাম হাতের কব্জির হাড় ভেঙ্গে গেছে এবং পায়ের হাড়ে ফাটল ধরেছে। এছাড়াও শরীরের বিভিন্ন অংশে ক্ষত সৃষ্টি হয়েছে তার। মরিয়মদের গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ আমড়াগাছিয়া গ্রামে।
পিকআপ ভ্যানটি চালক জাহাঙ্গীরকেসহ স্থানীয়রা আটক করে বরগুনা থানায় সোপর্দ করেছে। বরগুনা থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম মাসুদুজ জামান গতকাল রোববার (২৪-৬-১৮) জানান, মরিয়মের পরিবারের সম্মতিতে যাবতীয় চিকিৎসা খরচ দেয়ায় পিকআপ ভ্যানসহ চালক জাহাঙ্গীরকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।
এব্যাপারে ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ এর বরগুনা সভাপতি মাহবুবুর রহমান অভি জানান, চালকদের বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালানো এবং উদাসীনতার কারনেই এ দূর্ঘটনা ঘটেছে। এক্ষেত্রে প্রশাসনের কঠোর ব্যবস্থা নেয়া উচিৎ বলে মনে করেন তিনি।

*

*

Top