Bhalukanews.com

শিশুদের অধিকার উচ্চশিক্ষা পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত হবে

বাংলাদেশের উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উন্নয়ন যোগাযোগ বিষয়ে পাঠ্যক্রম প্রণয়ন এবং গবেষণা কর্মকাণ্ড পরিচালনার জন্য কর্মশালার আয়োজন করা হয়। রোববার পাঁচ দিনব্যাপী এ কর্মশালা সাভারের ব্র্যাক সিডিএমে শুরু হয়।

শিশুদের সুরক্ষা ও তাদের অধিকারসমূহ উচ্চশিক্ষা পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন ও জাতিসংঘ শিশু তহবিল (ইউনিসেফ) যৌথভাবে এ কর্মশালার আয়োজন করে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) চেয়ারম্যান প্রফেসর আবদুল মান্নান। ইউনিসেফ বাংলাদেশের কমিউনিকেশন ফর ডেভেলপমেন্ট (সিফরডি) প্রধান নেহা কাপিল অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন।

এছাড়া, কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন ইউনিসেফ-এর জ্যেষ্ঠ শিক্ষণ উপদেষ্টা ওয়াইথেরা গিকোনিও এবং ওহাইও বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস প্রফেসর ডেভিড এইচ মোল্ড।

প্রফেসর মান্নান শিশুদের অধিকারসমূহ উচ্চশিক্ষা পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত করার উদ্যোগ গ্রহণের জন্য ইউনিসেফকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, এ কর্মশালা শিশুদের বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠ্যক্রমে এবং অংশগ্রহণমূলক গবেষণা কর্মকাণ্ডে নকশা প্রণয়ন ও সক্ষমতা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

ইউজিসি চেয়ারম্যান আরও বলেন, বাংলাদেশের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা ও সামাজিক সমস্যা মোকাবেলায় উন্নয়ন যোগাযোগ এবং তথ্য প্রযুক্তি খুবই জরুরি। উন্নয়ন যোগাযোগ মানুষের আচরণ পরিবর্তন ও জীবনের ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে সহায়তা করে।

নেহা কাপিল বলেন, উন্নয়ন যোগাযোগ, সামাজিক এবং আচরণ পরিবর্তন যোগাযোগে শিশু অধিকার বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক গবেষণা পরিচালনা করা প্রয়োজন। শিশুদের অধিকার সুরক্ষা ও উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে আমাদের অভিজ্ঞতা উন্নয়ন যোগাযোগ এবং মানুষের আচরণ পরিবর্তন যোগাযোগে কাজে লাগাতে হবে।

বাংলাদেশের ৩০টি পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, ইউজিসি ও ইউনিসেফ’র কর্মকর্তারা এ কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন।

*

*

Top