Bhalukanews.com

দুর্ভাগ্য কাটাতে পায়ে তাবিজ বেঁধে খেলেছেন মেসি!

বিশ্বকাপে সাড়ে ছয়শো মিনিট গোল নেই তার পায়ে। মেসির এমন বাজে পারফরম্যান্স এর আগে দেখেনি ফুটল বিশ্ব। রাশিয়া বিশ্বকাপে প্রথম দু’ম্যাচে গোল তো পাননি, সঙ্গে মিস করেছেন পেনাল্টিও। দলকে ফেলেছিলেন খাদের কিনারায়। সেখান থেকেই আবার আর্জেন্টিনাকে টেনে তুললেন মেসি।

নাইজেরিয়ার বিপক্ষে স্বরূপে ফিরলেন। গোল করলেন। খেললেন নিজের স্বভাবসুলভ খেলা; কিন্তু এলএম টেনের এমন ভালো খেলার পেছনের রহস্যটা একটু চমকই দিতে পারে সবাইকে। পায়ে তাবিজ বেঁধে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে খেলেছিলেন তিনি!

ব্যাপারটা একটু আশ্চর্য হওয়ার মতই। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের পর আর্জেন্টিনার দুর্ভাগ্য যখন চরমে, তখনই মেসিদের সংস্পর্শে আসেন আর্জেন্টিনার তেলেফে টিভির উপস্থাপক রামা পানতোরোত্তো। ওই সময় মেসিকে একটা ‘অ্যামিউলেত’ দেন পানতোরোত্তো।

যার বাংলা অর্থ দাঁড়ায়, তাবিজ-কবচ, মাদুলি ইত্যাদি। যেটা পানতোরাত্তোর মা মারিয়া কসমিকা মেসির জন্য দিয়েছিলেন। মূলতঃ দুর্ভাগ্য দূর করার জন্য ব্যবহার করা হয় এই অ্যামিউলেত। অধিকাংশই বিশ্বাস করেন, এর আশ্চর্য জাদুকরী ক্ষমতা রয়েছে।

নাইজেরিয়ার বিপক্ষে লাল রঙের সেই অ্যামিউলেত মোজার নিচে গোড়ালিতে বেঁধে মাঠে নামেন মেসি। তিনি নিজে অলৌকিক কিছুতে বিশ্বাসী না হলেও, নাইজেরিয়ার বিপক্ষে কি তার সুদিন ফিরেছিল সেই আমুলেতের কল্যাণেই?

বিশ্বাসীরা বলতেই পারেন। কারণ, বিশ্বকাপে ৬৬২ মিনিট যার পায়ে গোল নেই, সেই ফুটবলারই কি না নাইজেরিয়ার বিপক্ষে করে ফেললেন দুর্দান্ত এক গোল! দলের হয়ে প্রথম গোলটি আসে তার পা থেকেই।

ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে যখন মেসি কথা বলছিলেন, তখন সেখানে উপস্থিত ছিলেন রামা পানতোরোত্তো। তখন তিনি মেসিকে অ্যামিউলেতের কথা জিজ্ঞেস করেন। ওই সময় মেসি সেটা মোজার ভেতর থেকে বের করে দেখান। সঙ্গে সঙ্গে আনন্দে উল্লসিত হয়ে পড়েন রামা। তার দেয়া অ্যামিউলেতের কল্যাণেই যে মেসির সঙ্গে আর্জেন্টিনার ভাগ্যও ফিরেছে! বিশ্বকাপে এবার তারা কতদূর যেতে পারে, এখন সেটাই দেখার বিষয়।

*

*

Top