Bhalukanews.com

বাংলাদেশের কাছে ১৪ গোলে হারলো পাকিস্তান

অনলাইন ডেস্ক: চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ভুটানে শিরোপা ধরে রাখার লক্ষ্য নিয়েই খেলতে গেলো বাংলাদেশের কিশোরী ফুটবল দল। সে লক্ষ্যে সূচনাটা দারুণ করেছে মারিয়া মান্দারা। ভুটানে অনুষ্ঠানরত নিজেদের প্রথম ম্যাচেই (৯ আগস্ট) প্রথমার্ধে ৬-০ গোলে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ।

পরে খেলা দ্বিতীয়ার্ধের ১৫ মিনিটে আরো ৮ গোল করে বড় ব্যবধান তৈরী করে বাংলাদেশের কিশোরী ফুটবল দল।

ম্যাচের ৬০ মিনিটের মধ্যেই ১২-০ ব্যবধানে এগিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। কিন্তু বারবার দূর পাল্লার শটে গোল করার চেষ্টা করতে গিয়ে কিংবা তাড়াহুড়ায় অনেক গোলের সুযোগ হাতছাড়া করেছে বাংলাদেশ দল।

সবশেষ নির্ধারিত সময়ে পাকিস্তানকে ১৪-০ ব্যবধানে উড়িয়ে দিয়ে বিজয়ের ম্যাধ্যমে শুরু হলো বাংলাদেশের শিরোপা ধরে রাখার অভিযান।

শামসুন্নাহার জুনিয়র ৪ গোল করেছেন। তহুরা, সাজেদা, আনাই করেছেন ২টি করে গোল। আর একটি করে গোল করেছেন মনিকা, শামসুন্নাহার, মারিয়া ও আখি।

ম্যাচে মোট ৫৮ শট নিয়েছে বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ পাকিস্তান একটি শটও নিতে পারেনি।

ভারতের এক ডজন গোলের জয় দিয়ে বৃহস্পতিবার ভুটানের চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে শুরু হয়েছে দ্বিতীয় সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ মহিলা ফুটবল। ‘এ’ গ্রুপের এই ম্যাচে কাল ভারত ১২-০ গোলে হারায় শ্রীলংকাকে।

বয়সভিত্তিক বিভিন্ন আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে গত কয়েক বছর ধরেই শ্রেষ্ঠত্ব দেখিয়ে চলেছে বাংলাদেশের মেয়েরা। অর্জনটা একদিনে হয়নি।

২০১৪ সালে নেপালে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৪ আঞ্চলিক চ্যাম্পিয়নশিপ দিয়ে শুরু। এরপর তাজিকিস্তানে একই টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন, ঢাকায় এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ বাছাইপর্বেও সেরা। এরপর গত বছর ঢাকায় সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ টুর্নামেন্টের পর এপ্রিলে হংকংয়ে চার জাতি জকি কাপেও হয়েছে চ্যাম্পিয়ন। সাফল্যের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে ভুটানেও আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশের মেয়েরা।

পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে বাংলাদেশ অধিনায়ক মারিয়া মাণ্ডা বলেছিলেন, আমরা এখানে শিরোপার জন্য এসেছি। দেশে আমার কোচের অধীনে অনেক কঠোর পরিশ্রম করেছি। পাকিস্তানের বিপক্ষে জেতার আত্মবিশ্বাস আমাদের আছে। প্রতিযোগিতার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বলে আমাদের ওপর কোনো চাপ নেই। সবাই ফিট ও মানসিক ও শারীরিকভাবে শক্তিশালী আছে, একটা দলের খেলে জেতার জন্য প্রস্তুত আছে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ শেষ ম্যাচ খেলবে ১৩ আগস্ট নেপালের বিপক্ষে।

*

*

Top