Bhalukanews.com

তাসকিনের বোলিং অ্যাকশনও অবৈধ!

আরাফাত সানির বোলিং অ্যাকশনে ত্রুটি থাকতে পারে, তা অনুমিতই ছিল। কিন্তু বিস্ময়কর হলেও সত্যি-তাসকিন আহমেদের বোলিং অ্যাকশনও নাকি অবৈধ! কিছুক্ষণ আগে আইসিসি থেকে এই দুঃসংবাদই জানানো হয়েছে বিসিবিকে। তবে এ ব্যপারে নিশ্চিত করে কিছু বলতে রাজী হননি বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘এখনও নিশ্চিত করে কিছু বলা যাচ্ছে না। আইসিসির রিপোর্ট হাতে পেলে বিষয়টা পরিষ্কারভাবে বুঝতে পারবো।’
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম পর্বে হল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচে আরাফাত সানির সঙ্গে তাসকিনের অ্যাকশন নিয়েও সন্দেহ তোলেন আম্পায়াররা। পরে গত ১৫ মার্চ বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিকের সঙ্গে চেন্নাইয়ে গিয়ে বোলিং অ্যাকশনের পরীক্ষা দেন তাসকিন। একটি সূত্রে জানা গেছে, আজ সেই পরীক্ষার রিপোর্ট সম্পর্কেই বিসিবিকে জানিয়েছে আইসিসি। তবে এ ব্যাপারে এখনো কিছু জানেন না বলে বেঙ্গালুরু থেকে মুঠোফোনে জানিয়েছেন বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা প্রধান আকরাম খান।
এর আগে সকালে বাঁহাতি স্পিনার আরাফাত সানির বোলিং অ্যাকশনকেও সন্দেহজনক বলে জানিয়েছে আইসিসি। তাঁর বিকল্প মোটামুটি ঠিক করাই ছিল। সানির জায়গা নিতে আজ রাতেই বেঙ্গালুরু যাচ্ছেন আরেক বাঁহাতি স্পিনার সাকলাইন সজীব। বিসিবির নির্বাচক কমিটির সদস্য হাবিবুল বাশারই মুঠোফোনে নিশ্চিত করেছেন তা, ‘টিম ম্যানেজমেন্ট থেকে আমাদের জানানো হয়েছে আরাফাত সানির বোলিং অ্যাকশনে ত্রুটি ধরা পড়েছে। তার বিকল্প পাঠাতে হবে। আমরা সাকলাইন সজীবকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’ তবে তাসকিনের বিকল্প কে, সেটা এই প্রতিবেদন খেলা পর্যন্ত জানা যায়নি।
সানি-তাসকিনের ব্যাপারে বিস্তারিত আর কিছু জানা যায়নি। তবে নিয়ম অনুযায়ী তাদের এখন বিসিবির অধীনে বোলিং অ্যাকশন শুদ্ধ করার কাজ করে আবারও পরীক্ষার মুখোমুখি হতে হবে। এসব ক্ষেত্রে সাধারণত নির্দিষ্ট কোনো সময়সীমা থাকে না। বোলিং অ্যাকশন শুদ্ধ করে কখন পরীক্ষা দিতে হবে, সে সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা সানি-তাসকিন এবং তাঁদের কোচদেরই। খবর- প্রথম আলো।

*

*

Top