Bhalukanews.com

প্লাস্টিকের পাত্রেই রাহমার জীবন!

ভালুকা নিউজ ডট কম; ডেস্ক: রাহমা হারুনা। বয়স সবেমাত্র ১৯। নাইজেরিয়ার কানো শহরেই তার বাস। আর দশ-পাঁচটা সাধারণ শিশুর মতো সুস্থ এবং স্বাভাবিকভাবে জন্ম নিয়েছিল সে। কিন্তু জন্মের ছয় মাস পর থেকেই অজানা এক রোগে আক্রান্ত হয় রাহমা। এখন তার জীবন বন্দি প্লাস্টিকের পাত্রে।

অজানা দূরারোগ্য এই রোগের ফলে তার হাত এবং পায়ের বৃদ্ধি বন্ধ হয়ে যায় এবং ১৯ বছর বয়সে এসে পঙ্গুত্ব মেনে নিতে হয় তাকে। তার মা ফাদি বলেন, ছয় মাস বয়সে সে যখন বসতে শিখেছিল তখন থেকে সে এই রোগে আক্রান্ত। হামাগুড়ি কীভাবে দিতে হয় সে তা জানে না। জ্বর থেকে তার এ রোগের শুরু। তখন পেটে ব্যথা হতো। এরপর তার হাত এবং পায়ে সমস্যা দেখা দেয়।

ধীরে ধীরে রাহমার ব্যথা বাড়তে থাকে এবং সে এক সময় পুরোপুরি অক্ষম হয়ে পড়ে। সে এখন তার পরিবারের ওপর সম্পূর্ণ নির্ভরশীল। তাকে গ্রামে ঘোরানোর জন্য একটি প্লাস্টিকের পাত্র ব্যবহার করে তার পরিবার। বেশির ভাগ সময় এ দায়িত্ব পালন করে তার ১০ বছর বয়সি ভাই ফাহাদ। সে তার বোনকে খুবই ভালোবাসে।

ফাহাদ বলে, আমি তাকে অনেকভাবে সাহায্য করি। তাকে গোসল করিয়ে দিই। আরো একটি কাজ যেটি করি তা হলো তাকে নিয়ে প্রতিদিন ঘুরতে বের হই। আমার খুব ভালো লাগে যখন দেখি মানুষ তাকে সাহায্য করে। আমি তাকে আমার আত্মীয় স্বজনের বাড়িতে নিয়ে যাই। বেড়াতে গিয়ে তাদের দেখে সে খুব খুশি হয়।

*

*

Top