Bhalukanews.com

ময়মনসিংহে শহরে ভাঙা রাস্তা, এ্যাম্বুলেন্সে বাচ্চা প্রসব

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি: ময়মনসিংহ শহরে বৃষ্টিতে অসংখ্য রাস্তা ভেঙে যাওয়ায় যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে ।আজ রবিবার সকাল সাড়ে ৯ টায় ভাঙা রাস্তায় ঝাকুনিতে এ্যাম্বুলেন্সেই এক যাত্রীর বাচ্চা প্রসবের ঘটনা ঘটেছে ।

এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে , ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার উচাখিলা এলাকার বাসিন্দা মো: খোকন মিয়ার স্ত্রী মোছাম্মদ নাসরিন আক্তারের প্রসব ব্যথা উঠলে এ্যাম্বুলেন্সযোগে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উদ্দেশ্যে রওনা দেন ।

ময়মনসিংহ শহরের ভৈরব রেল ক্রসিং (পাটগুদাম ব্রীজ সংলগ্ন)এলাকায় এ্যাম্বুলেন্সটি পোঁছলে ভাঙা রাস্তার কারণে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয় ।তখন সকাল ৯টা । রোগীনীর অবস্থা মারাত্নক দেখে, স্থানীয় এলাকাবাসী ও ট্রাফিক পুলিশের সহায়তায় দীর্ঘ আধঘন্টা চেষ্টার পর রাস্তাটি যানজট মুক্ত হয়। এ্যাম্বুন্সেটি তড়িঘড়ি করে হাসপাতালের উদ্দেশ্যে ছুঁটলে ভাঙা রাস্তায় তীব্র ঝাঁকুনিতে আলিয়া মাদ্রাসা বাজারের সামনে নাসরিস এ্যাম্বুলেন্সের মধ্যেই সকাল সাড়ে ৯টার দিকে একটি ছেলে বাচ্চা প্রসব করেন । পরে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ।হাসপাতালের চিকিৎসক ডাক্তার সাইফুল ইসলাম জানান, মা এবং বাচ্চা দুজনেই এখন পর্যন্ত সুস্থ আছেন ।

চলতি বর্ষা মৌসুমে শহরের বিভিন্ন স্থানে জলাবদ্ধতা এবং বর্ষনে অনেক রাস্তা ভেঙে গিয়ে খানাখন্দকের সৃষ্টি হয়েছে । ঘটছে এরকম অসংখ্য ছোট-বড় দুর্ঘটনা ।পৌরসভা কর্তৃপক্ষ জানায়, বর্ষাকাল শেষ হলে রাস্তা সংস্কারে দাতাদের আর্থিক সহযোগীতায় একশ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে ।ইতিপূর্বেও পৌরসভা ও সওজ রাস্তা সংস্কারে বিগত অর্থবছরে দশ কোটি টাকারও অধিক ব্যয় করলেও চলতি বর্ষা মৌসুমে তা ধুয়ে মুছে গেছে। শহরের চরপাড়া মোড় থেকে পাদ্রী মিশন হয়ে পাটগুদাম ব্রিজ মোড় পর্যন্ত প্রায় এক কিলোমিটার জুড়ে রাস্তায় সৃষ্টি হয়েছে ছোট বড় অসংখ্য খানাখন্দক ।

রাস্তার ইট সুড়কি , কার্পেট উঠে গেছে ।এই রাস্তায় ছোট বড় মাঝারি যানবাহন চলাচল করছে মারাতœক ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় ।এককথায় দুর্ভোগ অন্তহীন । রাস্তাটি সংস্কার না হওয়ায় এই রাস্তায় চলাচলররত ময়মনসিংহের পাশ্ববর্থী উপজেলা এবং সিলেট, নিত্রেকোনা, কিশোরগঞ্জ, উত্তরবঙ্গ, ঢাকাসহ বিভিন্ন রোটে চলাচলরত যানবাহনের যাত্রীদের রয়েছে হতাহতের ঝুঁকি।
অপরদিকে শহরের গুলকিবাড়ি, কলেজ রোড, সানকিপাড়া, গোহাইলকান্দি, স্টেশন রোড, নওমহল, সিকেঘোষ রোড, জেসিগুহ রোড, স্টেশন রোড, রামকৃষ্ণ মিশন রোডসহ বিভিন্ন অলিগলির রাস্তার অবস্থাও করুণ । এলাকাবাসী , পথচারী, শিক্ষার্থী সকলেই দুর্ভোগের শিকার । জলাবদ্ধতায় রাস্তা পেক কাঁদায় একাকার ।

ময়মনসিংহ পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম মিয়া জানান, গত অর্থ বছরে পৌর এলাকার সড়ক উন্নয়ন ও মেরামতে সরকার ও দাতা সংস্থার প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যয় করা হয়েছে। আর ময়মনসিংহ সড়ক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদ খান জানান, পৌর এলাকার সওজের সড়ক উন্নয়ন ও মেরামতে এই ব্যায়ের অঙ্ক ছিল গত অর্থ বছরে সাত কোটি টাকার ওপরে।

গত ১৮৬৯ সালে প্রতিষ্ঠিত বর্তমানে একুশ দশমিক ৭৩ বর্গকিলোমিটার আয়তনের প্রায় পাঁচ লাখ জনসংখ্যা অধ্যুষিত প্রথম শ্রেণীর ময়মনসিংহ পৌরসভায় পাকা সড়ক রয়েছে ১৭০কিলোমিটার। এর মধ্যে ২৮ কিলোমিটার সড়ক ময়মনসিংহ সড়ক বিভাগের অধীন।

শহরের আলীয়া মদ্রিসা রোডের বাসিন্দা ১৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব শাহজালাল হৃদয় জানান, চলতি বর্ষা মৌসুমে পাটগুদাম ব্রীজ থেকে হাসপাতাল পর্যন্ত রাস্তাটি সংস্কার জরুরী হয়ে পড়েছে ।

ছবি ক্যাপশণ : ভাঙা রাস্তায় ঝাঁকুনিতে এ্যাম্বুলেন্সে প্রসব হওয়া বাচ্চা।

*

*

Top