Bhalukanews.com

মাইকিং করে মারামারি, আহত অর্ধশত

সিলেট  প্রতিনিধি: সিলেটে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সোমবার দুই ইউনিয়নের গ্রামের লোকজনের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় ৬-৭ জন পুলিশ সদস্যসহ উভয়পক্ষের অর্ধশত ব্যক্তি আহত হয়েছেন। সোমবার সকাল সাড়ে ১১টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত উভয়পক্ষের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশ ২০০ রাউন্ড রাবার বুলেট ও ৩৩ রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে।

জানা গেছে, একপক্ষ আরেকপক্ষকে সংঘর্ষের আহ্বান জানিয়ে মাইকিং করে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে সশস্ত্র অবস্থান নেয়। এতে করে ওই সড়কে প্রায় আড়াই ঘণ্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। ঘটনাস্থলে বিশ্বনাথ ও সিলেট মহানগরী থেকে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়।
সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুজ্ঞান চাকমা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে মানবকণ্ঠকে জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় ৬-৭ পুলিশ আহত হয়েছেন। পুলিশ পরিস্থিতি শান্ত করতে ২০০ রাউন্ড রাবার বুলেট ও ৩৩ রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। তিনি আরো জানান, জনপ্রতিনিধি ও পুলিশ প্রশাসন চেষ্টা চালিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।
এর আগে গত বুধবার লামাকাজি বাজারের একটি ফার্মেসীর সামনে অটোরিকশা রাখাকে কেন্দ্র করে সদর উপজেলার আউশা গ্রামের এক ব্যক্তির সঙ্গে অটোরিকশা চালকের কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে লামাকাজি ইউনিয়নের মির্জারগাঁও গ্রামবাসী ও আউশা গ্রামবাসীর মধ্যে গত রোববার উত্তেজনা দেখা দেয়। এরই জের ধরে সোমবার সকাল ১০ টার দিকে সিলেট সদরের মোগলগাঁও ইউনিয়নের পক্ষে যুগীরগাঁও, ধনপুর, আউশা, চানপুর, খিত্তারগাঁও, লালারগাঁও, চৌধুরীগাঁও, তালুকপাড়া, লামারগাঁওসহ ১৬-১৭টি গ্রামের লোকজন, অন্যদিকে লামাকাজি ইউনিয়নের পক্ষে মির্জারগাঁও, মাতাবপুর, লামাকাজি, কাজিরগাঁও, দিঘলীসহ ১৫-১৬টি গ্রামের লোকজন দেশিয় অস্ত্র নিয়ে অংশ নেন। উভয়পক্ষ সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের লামাকাজি সেতুর দুই প্রান্তে সশস্ত্র অবস্থান নেয়। এরপরে তারা মারামারিতে জড়িয়ে পড়েন।

*

*

Top