Bhalukanews.com

খাদিজার জন্য দেশবাসীর দোয়া চাইলেন তার মা

সিলেট প্রতিনিধি : সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী খাদিজা বেগম নার্গিসের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন তার মা মনোয়ারা বেগম। খাদিজার উপর হামলাকারী বদরুল আলমের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিও জানিয়েছেন তিনি।মঙ্গলবার বিকেলে সাংবাদিকদের কাছে এমন দাবি জানান তিনি।চোখে জল নিয়ে মনোয়ারা বেগম বলেন, আমি আমার মেয়ের জন্য দেশের সকলের দোয়া কামনা করছি। আমার মেয়ে যেন সুস্থ হয়ে ওঠে।তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, আমার বাচ্চাটাকে কেন মেরেছে? আমার বাচ্চা কি করেছে? খাদিজার উপর হামলাকারী বদরুলের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, আমি এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।প্রসঙ্গত, কথিত প্রেমিক বদরুলের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গুরুতর আহত হওয়া সিলেট মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী খাদিজা বেগম নার্গিস (২৩) ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে রয়েছেন। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। খাদিজার অবস্থার অবনতি হওয়ায় গত মধ্য রাতে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে অ্যাম্বুলেন্সযোগে তাকে ঢাকা স্কয়ার হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে আজ বিকেলে তার অস্ত্রোপচার হয়েছে। তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রাখা হয়েছে।খাদিজা বেগম নার্গিস স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষার্থী। সোমবার বিকেলে সিলেট এমসি কলেজে পরীক্ষা দিয়ে বেরোনোর পর তার কথিত প্রেমিক বদরুল আলম (২৭) তাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। এসময় অন্যান্য শিক্ষার্থীরা বদরুলকে আটক করে ধোলাই দেয়। পরে শিক্ষার্থীদের হাত থেকে বদরুলকে নিজেদের জিম্মায় নেয় পুলিশ। আটককৃত বদরুল আলম শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০০৮-০৯ সেশনের অর্থনীতি বিভাগের অনিয়মিত শিক্ষার্থী। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাকে সাময়িকভাবে বহিষ্কার করেছে শাবি প্রশাসন।খাদিজা বেগম নার্গিসের গ্রামের বাড়ি সদর উপজেলার আউশা গ্রামে। তিনি সৌদী আরব প্রবাসী মাসুক মিয়ার মেয়ে। পরিবারের সাথে সিলেট নগরীর জালালাবাদ এলাকার বসবাস করেন তিনি। অন্যদিকে, বদরুলের গ্রামের বাড়ি সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার মুনিরঘাতি গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের সাইদুর রহমানের ছেলে।

*

*

Top