Bhalukanews.com

‘৩০০ টাকার বাল্ব ১০০ টাকা’ দুটিতেই স্বাস্থ্য ঝুঁকি!

ভালুকা নিউজ ডট কম; ডেস্ক: ‘শুধুমাত্র কোম্পানীর প্রচারের জন্য ৩০০ টাকার স্টার এনার্জি বাল্ব দিচ্ছি মাত্র ১০০ টাকায়। হ্যা ভাই, ৩০ ওয়াট এর একটা স্টার এনার্জি লাইট পাচ্ছেন মাত্র ১০০ টাকায়। সাথে আছে ছয় মাসের ওয়ারেন্টি। আজই আসুন।’ এভাবেই চমকপ্রদ বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে কম দামে রাস্তায় বিক্রি হয় এনার্জি সেভিং বাল্ব। বৈজ্ঞানিক ভাষায় যা মূলত এক ধরনের (সিএফএল) লাইট।

অপরদিকে নামীদামী কোম্পানির মোড়কেই এই বাল্বগুলো অধিক দামে বিক্রি করা হয়। প্রকৃতপক্ষে এনার্জি সেভিং বা (সিএফএল) লাইটেই রয়েছে স্বাস্থ্য ঝুঁকি।

এদিকে বিশেষজ্ঞদের তথ্যমতে জানা যায়, ‘সাধারণ বাল্বের আলোতে স্বল্প মাত্রায় অতি বেগুনী রশ্মি উপস্থিত থাকে। তবে ‘সিএফএল’ বাল্বে ক্ষতিকর রশ্মির মাত্রা অনেক বেশি। তাছাড়া সি এফ এল (এনার্জি সেভিং) বাল্ব ভেঙ্গে গেলে বা ভাঙ্গা হলে সেখান থেকে সহনীয় মাত্রার চেয়ে বেশি পরিমাণ ক্ষতিকর পারদ নির্গত হয়। গলিত পারদ বা পারদ বাষ্প পরিবেশ একই সাথে মানব দেহের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। তবে ‘এলইডি’ বাল্বএ স্বাস্থ্য ঝুঁকি তেমন নেই বলেও জানা যায়।

এদিকে সারেজমিন অনুসন্ধানে জানা যায়, ‘রাস্তায় স্বল্পমূল্যে বিক্রি হওয়া বাতিগুলো মূলত চীনে তৈরি। ন্যাশনাল কোম্পানি, স্টার লাইট ইত্যাদি নানা নামে বিক্রি হয়। এমনকি নষ্ট সার্কিটগুলো পুরান ঢাকার নবাবপুরে রিপেয়ার করে, নিজস্ব আনুষঙ্গিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে সেখানেই তৈরি করা হয় এনার্জি সেভিং বাল্ব।’

প্রতিদিনের মতই গুলিস্তানের ফুটপাতে ব্যাপক হাকডাক করে সাউন্ড বাজিয়ে এসব বাল্ব বিক্রি হয়। সেখানেই একটি দোকানে এক ক্রেতার সাথে কথা হয় ‘বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ’ প্রতিবেদকের সাথে। জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘কম দামে পাওয়া যায় তাই একটা কিনলাম। সাথে ওয়ারেন্টিও দিল।’ তবে এতে স্বাস্থ্য ঝুঁকি রয়েছে কিনা এ বিষয়ে কোন ধারণা নেই বলেই জানান এই ক্রেতা।’

তবে ভাল্বের উল্টো পিঠে যেমন রয়েছে মন্দ, ঠিক তেমনি শুধু কম দাম বলে পণ্যটি খারাপ তা নয়। দামি ও স্বল্পদামি সব এনার্জি সেভিং বাল্বেই রয়েছে স্বস্থ্য ঝুঁকি। এ বিষয়টি’ই স্পষ্ট করেছেন বিশেষজ্ঞরা।

বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) এর তড়িৎকৌশল বিভাগের অধ্যাপক মো. সাইফুর রহমান ভালুকা নিউজ ডট কমকে বলেন, ‘এখানে প্রশ্ন’টা ‘সিএফএল’ নিয়ে। এটি তৈরিতে ভোক্তাকে বাড়তি সুবিধা দিতে গিয়ে বেশি পরিমাণ পারদ ব্যবহার করা হয়। যে কারণে এটিতে স্বাস্থ্য ঝুঁকি রয়েছে। এছাড়া ‘এনার্জি সেভিং’ তো নামই দেওয়াই আছে। তবে এখানে আল্ট্রাবায়োলেট এর প্রভাবও লক্ষণীয়।’

*

*

Top