Bhalukanews.com

আমার বিজয় আমার গৌরব

সফিউল্লাহ আনসারী ===========               

আমার দেশ। আমার স্বাধীনতা। আমার বিজয়। আমার পরিচয়। প্রত্যেক ব্যাক্তির জন্য,জাতীর জন্য বিজয় মানেই আনন্দের,গর্বের। বিজয় মানেই আনন্দের বাধভাঙ্গা উচ্ছাস।পাওয়ার খুশি।বিজয় দিবস বাংলা-বাঙালীর জীবনে পরম পাওয়া। দ্বীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধ,ত্রিশ লক্ষ শহীদ,মা-বোনের ইজ্জত আর বীর মুক্তিযোদ্ধার প্রাণপণ লড়াই,সর্বোচ্চ ত্যাগের বিণিময়ে অর্জিত স্বাধীনতা,আমার বিজয়-বাংলাদেশ।বাংলাদেশে জন্ম গ্রহন করে আমি গর্বিত,ধন্য জীবন আমার আমি বাঙালী।
বাঙালীর তাজা রক্তের চড়া দামে কেনা আমার মানচিত্র,আমার অস্বিত্ব।বিজয়ের নানান আঙ্গিকের মধ্যে সবচেয়ে দামি এবং গর্বের-সফলতার,উল্লাসের,উচ্ছাসের,অর্জনের সীমাহীন বিজয়ের নাম বাংলাদেশ এবং এদেশের স্বাধীনতা। বাঙালীর অহংকারের সর্বোৎকৃষ্ট গৌরব বিজয় দিবস ১৬ ডিসেম্বর।
প্রাণের স্বাধীনতা বিজয়ের আনন্দকে করে অমর। বাংলা এবং বাঙালীকে বিজয় দিয়েছে বিশ্বের বুকে মাথা উচুঁ করে দাড়ানোর অধীকার। ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর বাঙালী ও বাংলাদেশের জীবনে অবিস্মরণীয় দিন। বাংলাদেশ নামের ভুখন্ডে সেদিন উদিত হয়েছিল এক নতুন সুর্য। যার জন্য প্রতিক্ষা আর স্বপ্নের জাল বুনতে হয়েছে অনেক দিন,মাস,বছরের পর বছর।
শাসনের নামে পাকিস্তানী শোষণের বেড়াজাল ছিন্ন করে বীর-বাঙালীজাতি রচনা করেছিল অমর ইতিহাসের। সেই ইতিহাসের নাম বাংলাদেশ,স্বাধীনতা,বিজয়। ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর আমরা পূর্ণ স্বাধীনতা আর মুক্তির স্বাদ পেলাম পুর্ণাঙ্গ বিজয় অজর্ণের মধ্য দিয়ে। আমরা পেলাম নুতন দেশ,সাথে পেলাম নতুন পতাকা,স্বতন্ত্র মানচিত্র।
মহান বিজয় দিবসের শপথ,আগামীর পথে এগিয়ে যাওয়া। আমাদের স্বপ্ন-আশা  প্রগতির পথে এগিয়ে যাবে আমার দেশ,আমার বাংলা বিজয়ের চেতনাকে ধারন করে। মুক্তিযোদ্ধের চেতনাকে ধারন করে গনতন্ত্র, শিক্ষা-সংস্কৃতি, খাদ্য-চিকিৎসা,বাসস্থানসহ জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে উন্নতিতে বিশ্বের বুকে সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে আমার দেশ সুনাম অর্জন করবে। বিজয়ের ৪৫ বছরে আমরা আর চাই না হানাহানি ও সংঘাতের রাজনীতি, চাই না আর অযথা ক্ষমতার দখলের জন্যই বিরোধ।প্রতিযোগীতা চাই অর্থনৈতিক সমৃদ্ধিসহ সকল ক্ষেত্রে উন্নতির। ক্ষমতা দখলের ধ্বংসের প্রতিযোগীতা আর নয়। আমরা শান্তিপ্রিয় বাঙালী-শান্তি চাই শান্তি।
স্বার্থক জনম আমার জন্মেছি এই দেশে…। আমাদের স্বপ্নকে স্বার্থক করতে একাত্তরের জাগরণ আর মাতৃভুমির প্রতি নীখাদ দেশ প্রেমকে জাগ্রত করতে হবে। বাংলাদেশের কল্যাণে সব সময় কাজ করতে হবে স্বাধীনতা আর বিজয়ের গৌরবকে সমুন্নত রাখতে। দেশের প্রতি প্রত্যেকটা মানুষের ভালোবাসা আর মমত্ববোধের স্বার্থক প্রতিফলনই হোক মহান স্বাধীনতার সুফল ও প্রত্যাশিত বিজয়ের সর্ব শ্রেষ্ঠ প্রাপ্তি।
মহান বিজয় দিবসের এই শুভক্ষনে সকল বীর শহীদ,মুক্তিযোদ্ধা,বীরাঙ্গনাদের প্রতি জানাই গভীর শ্রদ্ধা।

*

*

Top