Bhalukanews.com

বন ও পরিবেশ articles

Bhaluka pic-24.04 (1)

সিডস্টোর-সখীপুর সড়কের বেহাল দশা সংস্কারের দাবি এলাকাবাসীর

সিডস্টোর-সখীপুর সড়কের বেহাল দশা সংস্কারের দাবি এলাকাবাসীর

সফিউল্লাহ আনসারী : ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা শিল্পসমৃদ্ধ-কৃষি নির্ভর উপজেলা। উপজেলার মোট জনসংখ্যার মধ্যে ৬৭% মানুষ কৃষি নির্ভর ও গ্রামে বাস করে। শিল্পায়নের ছোঁয়া লাগলেও সে পরিমান সুবিধা পায়নি ভালুকার জনগন। তবে কিছু-কিছু সড়কের ইটের সলিং হলেও তা তুলনায় খুবই কম। সরেজমিনে দেখা যায়-উপজেলার সিডষ্টোর-বাটাজোর সড়কের বাটাজোর বাজারের গুরুত্বর্র্পুণ অংশে বিশাল গর্ত থেকে এখন ডোবায় পরিনত

52

নিমপাতায় দূর হবে উকুন

কারো মাথায় উকুনের যন্ত্রণা সহ্য করা বেশ কষ্টসাধ্য ব্যাপার। উকুনের যন্ত্রণায় অনেক সময় ঘুম হারাম হয়ে যায়। তাই মাথার উকুন তাড়াতে কত কিছুই না করেন। কখনো উকুন তাড়াতে ন্যাড়া হন।কিন্তু লাভ নেই, ন্যাড়া হলেই যে আপনার উকুন চলে যাবে এমনটি নয়। তবে আমাদের খুব পরিচিত একটি ঔষুধি গাছ আপনার মাথার উকুন তাড়াতে পারে। তা হলো নিমগাছ।নিমপাতার অনেক গুণের

20180304_141134

ভালুকায় বনের ভিতরে কয়লা কারখানা

ভালুকা (ময়মনসিংহ)প্রতিনিধি ;ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার চামিয়াদী গ্রামের সংরতি বনের ভেতরে অবৈধ কমপে নয়টি অবৈধ কয়লা কারখানা গড়ে উঠেছে। এসব কারখানায় অবাধে শাল-গজারিসহ বনের বিভিন্ন কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরি করা হচ্ছে। এতে প্রাকৃতিক এবং সামাজিক বনায়ন উজাড়ের পাশাপাশি কালো ধোঁয়ায় পরিবেশের তি হচ্ছে। উথুরা রেঞ্জ কার্যালয় সূত্রে জানাযায়, উপজেলার চামিয়াদী গ্রামে বন বিভাগের সামাজিক বনায়ন ও

010 (3)

ভালুকায় “হাছানিয়া সৌদিয়া খেজুর বাগান”এর চারা উৎপাদন শুরু

বিশেষ প্রতিনিধি: উপজেলার পাড়াগাঁও গ্রামে হাছানিয়া সৌদিয়া খেজুর বাগান নামে এক বাগানে চারা উৎপাদন শুরু করেছেন এক যুবক। জানা যায়,পাড়াগাঁও গতিয়ার বাজার এলাকার যুবক আফাজ পাঠান তার পার্শ্ববর্তী সৌদি খেজুর বাগান দেখে উৎসাহিত হয়ে তার বাড়ীর আঙিণা ও পতিত জমিতে সৌদি খেজুরের বাগান করে চারা উৎপাদন শুরু করেছে।আফাজ তার ১বিঘা জমিতে বিক্রির জন্য প্রস্তুত ৮শ চারা

4

দর্শনার্থীদের অন্যতম আকর্ষণীয় কোর সাফারি পার্ক

এস এম সোহেল রানা, গাজীপুর :  মানুষ বিনোদন প্রিয়। যদি সেই বিনোদন প্রকৃতির মাঝে পৃথিবীর সুন্দর সুন্দর বন্যপ্রানীতে পাওয়া যায় তাহলে আর কথাই নেই। দর্শনার্থীরা প্রকৃতি আর পশুর ভালোবাসায় মিলেমিশে একাকার। তাই দর্শনার্থীদের অন্যতম আকর্ষণীয় কোর সাফারি পার্ক। কোর সাফারী পার্কে সাফারী গাড়ী ব্যতীত অন্য্র কোন যানবাহন প্রবেশ করতে পারে না । কারন মজার বিষয়

basai 1

দর্শন হয়ছেে কি বঙ্গবন্ধু সাফারী পার্ক !

এস এম সোহেল রানা : বহুদিন ধরে,বহু ক্রোশ দূরে,বহু ব্যায় করে,বহুদেশ ঘুরে,দেখিতে গিয়াছি পর্বতমালা ,দেখিতে গিয়াছি সিন্ধূ , দেখা হয়নাই চক্ষু মেলিয়া ,ঘর হতে শুধু দুপা ফেলিয়া,একটি ধানের শিষের উপরে একটি শিশির বিন্দু। রবি ঠাকুরের কবিতার ধারাবাহিকতায় তেমনি অনেকেরই যাওয়া হয়নি দেশের অন্যতম দর্শনীয় স্থান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারীর্ পাক।ে গাজীপুর সদর উপজেলার পিরুজালী ও

6

বরমীতে কৃষক দোকানি অতিষ্ঠ :: খাদ্যাভাবে বানর

এস এম সোহেল রানা , গাজীপুর  ঃ বুড়া বান্দর ,বুড়ি বান্দর ,ঝুইলা বান্দর (মোটাতাজা) বাদরামী স্বভাবের বান্দর। আরো অনেক নামেই ডাকা হয় । আবার কেঊ কেউ বানর দিয়ে খেলা দেখিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে । আর সেই বানর প্রাকৃতিক ভারসাম্যে বিলিন হতে যাচ্ছে । কৃষকের ফসল নষ্ট করছে ,জামা কাপর নিয়ে যাচ্ছে, ছিড়ে ফেলছে । দোকানীর

Mymensingh 18-7-17 (2)

দাম বেশি রাখায় রেস্টুরেন্টকে জরিমানা

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি: ময়মনসিংহে পানি ও কোমল পানীয়ের দাম বেশি রাখায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ অনুযায়ী ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর ধানসিড়িঁ রেস্টুরেন্টকে ১২০০০ টাকা ও নগরীর ইয়াং কিং রেস্টুরেন্টেকে ৫০০০ টাকা জরিমানা করা হয়। মঙ্গলবার (১৮ জুলাই) বিকেলে জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোঃ শাহ আলম অভিযোগকারীদের জরিমানার ২৫% টাকা হস্তান্তর করেন। অভিযোগের

বিদ্যুৎকেন্দ্র-621x350

‘রামপালের জন্য কিছু শর্ত দিয়েছে ইউনেসকো’

অনলাইন: রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নিয়ে ইউনেসকোর আর কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। তিনি বলেন, যেখানে বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের কাজ চলছে সেখানেই চলতে পারবে। প্রতিমন্ত্রী জানান, পরিবেশ সুরক্ষার জন্য ইউনেসকোর পক্ষ থেকে বেশ কিছু শর্ত দেওয়া হয়েছে। সেগুলো বাংলাদেশ মেনে নিয়েছে। বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের ক্ষেত্রে শর্তগুলো মানা হবে বলে তাদের আশ্বস্ত করা হয়েছে। আজ

20170621_095705

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের ঈদ আকর্ষণ দূর্লভ প্রজাতির প্রাণি ও পাখির শাবক

এফ এম আমান উল্লাহ আমান,গাজীপুর প্রতিনিধি ॥  গাজীপুরের শ্রীপুরে বঙ্গবন্ধু শেখমুজিব সাফারি পার্কের ঈদ আকর্ষণে নতুন মাত্রা যোগ করবে  ১৩ প্রজাতির  প্রানি ও পাখির শাবক। পার্কে জন্ম নেয়া শাবক  গুলো উন্মুক্ত পরিবেশে গুরে বেড়ায় মায়ের সাথে।  মেতে থাকে ছুটা ছুটি আর  ধুরন্ত পনায়। দূর্লভ প্রাণির এমন দৃশ্য দর্শনার্থীদের মধ্যে নতুন মাত্রা যোগ করবে। পার্ক সূত্রে

Top