Bhalukanews.com

কবিতা articles

স্বাধীনতা আমার জান

স্বাধীনতা আমার জান

 -মুহা. মাহবুবুর রহমান   স্বাধীনতা আমার ঘ্রাণ স্বাধীনতা আমার গান, স্বাধীনতা আমার প্রাণ স্বাধীনতা আমার আত্ন সম্মান, স্বাধীনতা আমার জান। স্বাধীনতা আমার বীণার সুর স্বাধীনতা আমার স্মৃতি মধুর। স্বাধীনতা আমার তুর্য্য স্বাধীনতা আমার রক্তিম সূর্য্য। স্বাধীনতা আমার নেশা স্বাধীনতা আমার সকল আশা স্বাধীনতা আমার মায়ের ভাষা। স্বাধীনতা আমার ফকির আলমগীর আব্দুল আলীমের গান, স্বাধীনতা আমার

মুক্তি

== মোঃ সালাহ উদ্দিন ভালো বাসা ভালো , সকলেই জানো। ভালো বাসা পাওয়া , সকলেরই চাওয়া । ভালো বাসার নীড় , সকলেই চাই। ভালো বাসার শ্বাস , সকলের ও আশ। ভালো বাসার আনন্দ , সকলেই চাই। ভালো বাসার জল্পনা , সকলের ও কল্পনা। ভালো বাসায় যন্ত্রনায় , মনে রেখ ভাই , কবি-সাহিত্যিক-শিল্পী-শ্রমিক , এতে কারো

প্রাণের ভাষা

ইমরুল মিশু বাংলা আমার প্রাণের ভাষা বাংলায় কথা বলি, জন্মের পরে শিখেছি যেই বাংলা মায়ের বুলি ।। বাংলার জন্য কত শহীদ দিয়ছে তাজা প্রাণ, তাদের জন্য পেয়ছি আজ বাংলা মায়ের গান ।। শহীদ জব্বার, সালাম, বরকত শহীদ কত জনে, তাদের চিৎকার বেঁজে উঠে আজো সবার প্রাণে ।। বাংলাদেশে বাংলার হোক পূর্ণ ব্যবহার, একটু হলেও মিলবে

ক্ষনিক জীবন

আবুল বাশার শেখ মিষ্টি রোদের সকাল বেলা মন মানুষে করছে খেলা পাখির ডানায় কাব্য-কলা সুখের বেলায় মিথ্যে বলা। একলা পথিক স্বপ্ন ছাড়া পথের মায়ায় দিচ্ছে তাড়া চলছে মনের আপন ধারায় আশে পাশে কেউ না দাড়ায়। হায়রে জীবন খোঁজলিনা সুর মনের মানুষ রইলো যে দূর চিনলিনা মন চিনলিনা ধন চোখের দেখায় ক্ষনিক জীবন। ১১ জানুয়ারী, বুধবার।

আকাশে ওড়ার স্বপ্ন ছিল যে মেয়েটার –প্রদীপ বালা

আকাশ দেখার স্বপ্ন ছিল মেয়েটার ছোট থেকেই আকাশে পাখি হয়ে ওড়ার সাধ ছিল তার মফঃস্বল থেকে শহরে এলো যেদিন জীবনে প্রথমবার কলেজ ক্যাম্পাসের সোনালী রোদ গায়ে এসে পড়েছিল সে বুঝতে পারল আকাশের অনেক কাছাকাছি আছে কলেজ ক্যান্টিনে একটা ঝাঁকড়া চুলের ছেলে একদিন এসে বলল, হাই! সেই থেকে আলাপ। তারও নাকি স্বপ্ন আকাশ হওয়ার মুখে রবীন্দ্রনাথ,

মেঘ বালিকা বৃষ্টি হবি-শ্যামল সোম

এই মেয়ে তুই বৃষ্টি হবি বৃষ্টির শ্রাবণের ধারা হয়ে অঝরে পড়বি ঝরে আমার বুকের পড়ে। বৃষ্টি তোর ধারায় ভিজছি দেশের তুই এখন; অঝরে শরীর বেয়ে কুল কুল করে বহে যাচ্ছে সুখ, স্বাদ গলে গলে পড়ছে আশ, বাসনা হৃদয়ের বাসনা। গহীন গোপন যত জমানো অবিশ্রান্ত বেদনা নীল পদ্ম ফুটছে ঐ দীঘি জলে, বৃষ্টি তোকে জড়িয়ে দু

পরাজয়-জসীম উদ্দীন মুহম্মদ

সময়ের কাছে এক তিলক সময় ধার চেয়েছিলাম সে দেয়নি, দিতে পারেনি; তাঁর অভিধানে ধার-দেনা জাতীয় কোনো শব্দ নেই! অতঃপর সমুদ্রের কাছে গিয়েছিলাম বলেছিলাম, আমাকে কিছুটা গভীরতা দাও রাখ-ঢাক ছাড়াই সেও আমাকে সাফ সাফ জানিয়ে দিলো, “আমার কোনো গভীরতা নেই”! তারপর জটাধারী পথে ফেরার আমি তটিনীকে বললাম—, আমাকে কিছুটা বহতা দাও বিকট আর্তচিৎকারে আকাশ-বাতাস কাঁপিয়ে সে

এই তো জীবন

আবুল বাশার শেখ একটা রাত, সামান্য সময় তবুও দীর্ঘতার সীমায় প্রশ্নবিদ্ধ, বেহায়া চোখের পলক নির্ঘুূম মাঝে মাঝে পায়চারি, হিসেবের খাতা খোলা কাগজ কলমের হিসেব নয়- জীবনের হিসেব; ভাবনাতেই কেটে যায় রাত। জীবন তো জীবনই থামবার অবকাশ কোথা, সময়ের ব্যবধানে কোন এক দিন থেমে যায়, থেমে যাবে এই তো জীবন। ০৮ অক্টোবর।

হাসি

==== মির্জা মুহাম্মদ নূরুন্নবী নূর হাসি– তোমাকে আমি অনেক ভালোবাসি। তাই– সারাটি জীবন তোমারই দেখা চাই। ফুল– তুমি ভেঙে দিয়েছ আমার শত ভুল। তাই– তোমার মত আমরা উদার হতে চাই। পাখি– আমি তোমায় আপনার করে ডাকি। তাই– তোমার সাথী হয়ে বনে ঘুরতে চাই। ফল– তোমায় খেয়ে বাড়ে শক্তি-সাহস বল। তাই– তোমাকে ফরমালিনমুক্ত সতেজ চাই। নদী–

সাঈদ সাইদুল এর কবিতা

,আকাশ বিক্রি হচ্ছে সস্তায়, জলের দামে বিক্রি হচ্ছে সমুদ্র। অথচ অামি কিনতে পারছিনা। . পৌরুষ বিক্রি হচ্ছে হারবাল শপে, ছাপাখানায় শতশত কবিতা। অথচ অামি লিখতে পারছিনা। . সন্ধ্যা হলেই গোলাপের মত চুমুগুলো কিনে নিচ্ছে অাবাসিকের ভদ্দরলোক। একেবারে নেহায়েত কমদামে বিক্রি হচ্ছে মিছিলের সবগুলো হাত। ইথারে ইথারে বিক্রি হচ্ছে মুঠোমুঠো শৈশব, কৈশরের মক্তব পালানো দিন। আমি

Top