কবিতা

 তরুণ কবি শরীফ মল্লিক-এর একগুচ্ছ কবিতা

ইচ্ছে করলেই*

ইচ্ছে করলেই

একজন সুজন দার সাথে বছরের পর বছর

এক শহরে থেকেও দ্যাখা করা যায় না

অথবা

একজন হেলাল হাফিজের সাথে

দ্যাখা করার সময় হয়ে উঠে না

 

ইচ্ছে করলেই

তুলি আপুকে বলা যায় না

মিস ইউ আপু

ভীষণ মিস করি তোমায়

 

ইচ্ছে করলেই

শ্যামাকে ফিরিয়ে আনা যায় না

ঝুমাদের ছেড়ে দেওয়া যায় না

অথবা

মণিদের বলা যায় না ভালো লাগার কথা

 

ইচ্ছে করলেই

নিজেকে কবি বলা যায় না

আকাশ ছোঁয়া যায় না

অথবা

আকাশের মুক্ত পাখি হওয়া যায় না

 

ইচ্ছে করলেই

মনকে বেঁধে রাখা যায় না চোখকে উপড়ে ফেলা যায় না

অথবা

চোখের কোণে জমে থাকা জল লুকানো যায় না।

 

ইচ্ছে করলেই

মানুষ হওয়া যায় না

কবি হওয়া যায় না

অথবা

কবিদের মতো কল্পনা করা যায় না

 

ইচ্ছে করলেই

সত্যকে সত্য বলা যায় না

মিথ্যাকে মিথ্যা বলা যায় না

অথবা

সামাজিক ইশ্বর হওয়া যায় না।

 

ইচ্ছে করলেই

যাকে তাকে বিশ্বাস করা যায় না

যার তার হাতের ভাত মুখে তোলা যায় না

অথবা

অবিশ্বাসীদের ঘৃণা করা যায় না

 

ইচ্ছে করলেই

তাকে ফিরিয়ে আনা যায় না ফিরিয়ে আনা যায় না

ভালো ভাবে বাঁচা যায় না

বাঁচা যায় না।

 

ইচ্ছে করলেই

শুধু ইচ্ছে করলেই

ইচ্ছেগুলোকে কবর দেওয়া যায়

নিজেকে নষ্টদের দখলে দেওয়া যায়

কষ্টের পাহাড় বুকে নিয়ে মরে যাওয়া যায়।

#

অজানার দিকে হেঁটে যাওয়া আমি এক ক্লান্ত পথিক

 

ক্লান্ত দেহ তবু আমি হাঁটছি হাঁটছি আর অবিরাম হাঁটছিই

কেউ থামাতে আসে না

কেউ তাকিয়ে দেখে না

কেউ জিজ্ঞেস করে না

কেন এই অবিরাম লাগাতার হাঁটা।

তবু আমি হেঁটেই চলেছি

সামনে হাঁটছি

পিছনে হাঁটছি

আড়ালে হাঁটছি

প্রকাশ্যে হাঁটছি

নিরবে হাঁটছি

সরবে হাঁটছি

শুধু হাঁটছি হাটছি আর হাঁটছিই।

কোনদিকে যাচ্ছি

কার কাছে যাচ্ছি

কেন যাচ্ছি

আমি তার কিছুই জানি না।

তবু আমাকে হাঁটতে হচ্ছে বিরতিহীন হাঁটতে হচ্ছে অজানার দিকে।

#

 

নষ্ট কথা

 

নষ্টামি বেঁধেছে বাসা মনের ভিতর সারাদিন সারারাত, বয়ে যায় ঝর ভাঙ্গে না সে বাসা, থামে না সে ঝর, ফেঁসে গেছি আমি সেই ঝরের ভিতর।

#

 

কবিতার চাষ

 

সারাদিন কবিতার করিলাম চাষ

যদি ভাই ফলে যায় খাবো বসে টানা বারোমাস।

#

অসুখ

কোন এক ক্লান্ত দুপুরে

তোমার চোখে রেখেছিলাম

আমার দুটি চোখ তারপর কোনদিন

আর ভালো থাকা হয়নি আমার

আমার হয়েছে তবে এ কোন অসুখ।

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button