জাতীয়

অশুভ তৎপরতা সম্পর্কে সবাইকে সজাগ থাকার আহ্বান খালেদা জিয়ার

নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশকে ধর্মীয় সম্প্রীতির দেশ উল্লেখ করে যেকোনো ধরনের অশুভ তৎপরতা সম্পর্কে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবাইকে সজাগ থাকার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা ও বিজয়া দশমী (১১ অক্টোবর) উপলক্ষে দেওয়া বাণীতে এ আহ্বান জানান বিএনপির চেয়ারপারসন। গতকাল সোমবার দুপুরে দলের পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে গণমাধ্যমে এই বাণী পাঠানো হয়। বাণীতে শারদীয় দুর্গাপূজা ও বিজয়া দশমী উপলক্ষে হিন্দু ধর্মাবলম্বী সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন খালেদা জিয়া। তাঁদের সুখ, শান্তি ও কল্যাণ কামনা করে তিনি বলেন, যেকোনো ধর্মীয় উৎসবই মানুষে মানুষে নিবিড় বন্ধন রচনা করে এবং ভ্রাতৃত্ববোধ জাগরিত হয়। সব ধর্মের মর্মবাণী শান্তি ও মানবকল্যাণ। মানুষ হিসেবে হিংসা-বিদ্বেষ ও রক্তারক্তি পরিহার করে সমাজে শান্তি ও সাম্য প্রতিষ্ঠায় ব্রতী হওয়া আমাদের সকলের কর্তব্য। হিংসা, লোভ ও ক্রোধরূপী অসুরকে বিনাশ করে সমাজে স্বর্গীয় শান্তি প্রতিষ্ঠা করা দুর্গাপূজার অন্তর্নিহিত বাণী উল্লেখ করে সাবেক প্রধানমন্ত্রী বলেন, নির্যাতন, নিপীড়ন ও প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার মধ্য দিয়ে যারা সমাজকে-মানবসভ্যতাকে ধ্বংস করতে চায়, প্রতিষ্ঠিত করতে চায় দুঃশাসনÑতাদের বিরুদ্ধে সংগ্রাম করে মানবকল্যাণ প্রতিষ্ঠা এই উপাসনার মূল লক্ষ্য। সেই বাণীকে আত্মস্থ করেই দুর্গাপূজার উৎসবের আনন্দ সকলে মিলে ভাগ করে নিতে হবে। খালেদা জিয়া আরো বলেন, বিএনপি এ দেশের প্রতিটি মানুষের ধর্মীয় স্বাধীনতা রক্ষায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমরা সংখ্যাগুরু ও সংখ্যালঘু-তত্ত্বে বিশ্বাস করি না। আমরা সবাই বাংলাদেশিÑএটাই হোক আমাদের বড় পরিচয়। আমি শারদীয় দুর্গোৎসবের সর্বাঙ্গীণ সাফল্য কামনা করি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button