জাতীয়

চোখ দিয়ে অজরে পানি ঝরছিল খাদিজার

ঢাকা: চোখ খুলেছেন খাদিজা। চাচার ডাকে দু’বারই সাড়া দিয়ে চোখ মেলে তাকিয়েছেন। তবে, কোনো কথা বলতে পারেননি। এ সময় খাদিজার চোখ দিয়ে শুধু পানি ঝরছিল।

খাদিজার পিতা মাসুক মিয়া গতকাল বিকালে এ কথা জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, খাদিজার শারীরিক অবস্থার ধীরে ধীরে উন্নতি হচ্ছে। শাবি ছাত্রলীগ নেতা বদরুল আলমের চাপাতির উপর্যুপরি আঘাতে গুরুতর আহত সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিস ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বৃহস্পতিবার সকালে ডাক্তাররা তার লাইফসাপোর্ট খুলে দেন।

এরপর থেকে খাদিজাকে লাইফ সাপোর্টহীন অবস্থায় আরও ২৪ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে রাখা হয়।

এদিকে খাদিজার সঙ্গে ঢাকায় অবস্থান করছেন তার চাচা আব্দুল কুদ্দুস ও মামা আব্দুল বাছিত। গতকাল সকাল ৯টার দিকে তারা চিকিৎসাধীন খাদিজাকে দেখতে যান।

চাচা আব্দুল কুদ্দুস জানিয়েছেন, সকালে গিয়ে দেখেন খাদিজা কিছুটা নড়াচড়া করছে। এ সময় তিনি খাদিজাকে ডাক দিলে খাদিজা চোখ মেলে তাকায়। কিছু সময় তাকিয়ে থেকে ফের চোখ বন্ধ করে। পুনরায় তাকে ডাকলে সে চোখ মেলে তাকিয়েছে।

এ সময় তার চোখ দিয়ে পানি ঝরছিল। তবে, খাদিজা কোনো কথা বলতে পারেনি।

খাদিজার পিতা মাসুক মিয়া জানিয়েছেন, খাদিজার অবস্থার উন্নতি হচ্ছে। খাদিজা ফিরে আসার অপেক্ষায় রয়েছে তারা। তিনি খাদিজার জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া কামনা করেন। ঢাকায় অবস্থান করা স্বজনরা জানিয়েছেন, গতকালও স্কয়ার হাসপাতালের ডাক্তারদের সঙ্গে কথা বলেছেন তারা।

এ সময় ডাক্তাররা তাদের বলেছেন, খাদিজার অবস্থা দিন দিন উন্নতি হচ্ছে। আরও এক সপ্তাহ চিকিৎসার পর ডাক্তাররা পুরোপুরি তথ্য জানাতে পারবেন। তবে, এখন আশঙ্কামুক্ত নয় খাদিজা। তবে, চিকিৎসকরা চিকিৎসায় কোনো ত্রুটি রাখছেন না।

ওদিকে, খাদিজার জন্য প্রার্থনা চলছে সিলেটে। ঘটনার পর থেকেই যারাই খাদিজার বাড়ি যাচ্ছেন তারা গিয়ে দোয়া মাহফিলে শরিক হচ্ছেন। এমনকি বৃহত্তর টুকেরবাজার এলাকার মসজিদে মসজিদে খাজিদার জন্য দোয়া করা হয়।

খাদিজার পিতা জানিয়েছেন, সিলেটবাসীর দোয়া খাদিজার সঙ্গে রয়েছে। সবাই খাদিজার জন্য মনেপ্রাণে দোয়া করছেন। এজন্য তিনি সবার কাছে কৃতজ্ঞ।

বিএনপির মানববন্ধন: খাদিজার ওপর হামলার ঘটনার প্রতিবাদে ও হামলাকারী ছাত্রলীগ নেতার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বৃহস্পতিবার বিকালে সিলেটের কোর্ট পয়েন্টে মানববন্ধন করেছে জেলা বিএনপি।

এ সময় আয়োজিত সমাবেশে সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী শামীম বলেছেন, সিলেটের ঐতিহ্যবাহী এমসি কলেজে প্রকাশ্য দিবালোকে সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের মেধাবী ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসের ওপর শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহসম্পাদক বদরুলের নৃশংস হামলা মধ্যযুগীয় বর্বরতাকেও হার মানিয়েছে।

নরপিশাচ বদরুলকে অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে দৃষ্ঠান্তমূলক সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। যাতে আর কোনো সন্ত্রাসী এমন বর্বর কর্মকাণ্ড না করতে পারে।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন- সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ, সাবেক আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট নুরুল হক, বালাগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সভাপতি কামরুল হুদা জায়গীরদার, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, সদর উপজেলা সভাপতি আফরোজ মিয়া, সিলেট মহানগর বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল হাসান কয়েস লোদী প্রমুখ।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button